আন্তর্জাতিকনিউজ

Ukraine Crisis: ‘ভারত মাতা কি জয়’, যুদ্ধক্ষেত্রে পাকিস্তানি পড়ুয়াদের প্রাণ বাঁচাল ভারতের তিরঙ্গা!

যুদ্ধবিধ্বস্ত ইউক্রেনে আটকে থাকা ভারতীয় পড়ুয়াদের উদ্ধার করতে ভারত সরকারের তরফে লঞ্চ করা হয়েছে “অপারেশন গঙ্গা”। কোন ভাবে একটি পথ বন্ধ হয়ে গেলে বিকল্প রাস্তা খোঁজা হচ্ছে সরকারের তরফে। যার কারণে ইতিমধ্যেই লঞ্চ করা হয়েছে একাধিক হেল্পলাইন নাম্বারম আটকে থাকা ভারতীয়দের উদ্ধারকার্যে লঞ্চ করা এই মিশনের কথা সারা বিশ্বের প্রায় সকলেরই জানা হয়ে গিয়েছে আর এই মিশনেরই ফায়দা উঠাচ্ছেন পাকিস্তানি নাগরিকরা।

ইউক্রেনে থাকা ভারতীয় দূতাবাসের তরফে পরিষ্কার বার্তা দেওয়া হয়েছে, যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশটির যেকোনো স্থানে আটকে থাকা ভারতীয়রা সীমান্ত স্থলে আসার জন্য যে পরিবহন ব্যবহার করবেন তার সামনে ভারতীয় পতাকা লাগিয়ে নিলেই আর দুশ্চিন্তার কারণ থাকবে না। কোনরকমে সীমান্তে পৌঁছাতে পারলেই সেখান থেকে এয়ারলিফট করা হবে ভারতীয় জনগণদের।

দেশের তরফ থেকে জারি করা এই নির্দেশিকাকে মেনে ইতিমধ্যেই সীমান্তে পৌঁছে গিয়েছেন হাজার হাজার ভারতীয় পড়ুয়া এবং বাসিন্দারা। তবে ভারতীয়দের পাশাপাশি ইউক্রেন ছাড়তে মরিয়া পাকিস্তানীরাও ভারতীয় বেশ ধরে পৌঁছেছেন সীমান্তে। ইউক্রেনে আটকে থাকা পাকিস্তানি স্টুডেন্টরা কোন প্রকারের সীমান্ত অঞ্চলে পৌঁছানোর জন্য ব্যবহার করছেন ভারতীয় পতাকা দিচ্ছেন “ভারত মাতা কি জয়” স্লোগান।

পাকিস্তানের তরফে এখনো পর্যন্ত সরাসরি এই ঘটনাটিকে স্বীকার না করা হলেও যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশটি থেকে ভাইরাল হওয়া একটি ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে পাকিস্তানিরা তাদের বাসে লাগিয়ে নিচ্ছেন ভারতীয় পতাকা। ফলতঃ সীমান্ত প্রদেশে পৌঁছাতে তাদের কোনো অসুবিধা হচ্ছে না। রাশিয়া-ইউক্রেন সংঘাতে আটকে থাকা কুড়ি হাজার ভারতীয়দের সংখ্যা ইতিমধ্যেই এয়ারলিফট এর মাধ্যমে নামিয়ে আনা হয়েছে আটহাজারে। তবে বাকি আটকে থাকা ভারতীয়দের সরকারের তরফে খুব শীঘ্রই এয়ারলিফট করা হবে বলেই জানানো হচ্ছে বিদেশ সচিব হর্ষবর্ধন শ্রিংলার তরফে!