লাইফস্টাইল

ভুলে যান চিকেন-মটন, এবার বাড়িতেই বানিয়ে ফেলুন চিংড়ি মাছের কোপ্তা বিরিয়ানি, রইল রেসিপি

চিকেন বা মটন নয়, খুব সহজেই বাড়িতেই বানিয়ে ফেলুন চিংড়ি মাছের কোপ্তা বিরিয়ানি। বাঙালির প্রিয় দুটি মাছ হল ইলিশ আর চিংড়ি। তবে এই দুই মাছ নিয়ে সর্বদায় ঘটি বাঙালের মধ্যে চলতে থাকে লড়াই। তবে লড়াই থাকলেও এই মাছ দুটি বাঙালিকে যেন এক সুতোই বেঁধে রেখেছে, কারণ সকলে যেমন সরষে ইলিশ পছন্দ করেন ঠিক তেমনি চিংড়ি মাছের মালাইকারি। তাই এই দুই মাছের কোনো তুলনা নেয় বাঙ্গালীর কাছে। এই দুই মাছ পছন্দ করেন না এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া যায় দুষ্কর। আর আজকের প্রতিবেদনে আপনাদের শেখাবো চিংড়ি মাছের তৈরি একটি নতুন রেসিপি।

সকলের পছন্দের একটি খাবার হল বিরিয়ানি। তবে এই বিরিয়ানি বেশিরভাগই আমরা চিকেন বা মাটনের খেয়ে থাকি। আবার অনেক সময় বিরিয়ানিতে ভ্যারিয়েশন আনার কারণে বিভিন্ন ধরনের বিরিয়ানি আমরা দেখি, যেমন ইলিশ বিরিয়ানি। বিভিন্ন রেস্তোরাতে এই ইলিশ বিরিয়ানি চড়া দামে বিক্রি হয়। তবে আজ আপনাদের যেই রেসপিটি শেখাবো সেটি একদম নিত্যনতুন একটি বিরিয়ানির রেসিপি, যা হলো “চিংড়ি কোপ্তা বিরিয়ানি”। চলুন তবে দেরি না করে জেনে নিই কিভাবে বানাবেন এই রেসিপি।

উপকরণ- চিংড়ি মাছ ৫০০ গ্রাম, বিরিয়ানির চাল ২০০ গ্রাম, আদা বাটা, রসুন বাটা, লঙ্কা কুচি, পেঁয়াজ কুচি, বিরিয়ানি মশলা, দুধ কেশরের মিশ্রণ, নুন, সাদাতেল, ঘি।

পদ্ধতি- “চিংড়ি কোপ্তা বিরিয়ানি” বানানোর জন্য প্রথমে চিংড়ি মাছ গুলিকে ভালো করে ছাড়িয়ে ধুয়ে নিয়ে মিক্সিতে পেস্ট বানিয়ে নিতে হবে। তারপর ওই পেস্টের মধ্যে একে একে দিতে হবে আদা বাটা ১ চামচ, রসুন বাটা ১ চামচ, লঙ্কা কুচি, পেঁয়াজ কুচি দিয়ে ভালো করে মাখিয়ে নিতে হবে। এরপর কড়াইয়ে তেল গরম করে কোপ্তার আকারে গোল গোল করে ভেজে নিতে হবে।কোপ্তা ভাজা হয়ে গেলে বেরেস্তার জন্য পেঁয়াজ ভেজে নিতে হবে।

ভাত ৭০% সেদ্ধ হয়ে গেলে প্রেসার কুকারে সামান্য সাদাতেল মাখিয়ে নিয়ে কিছুটা ভাত দেওয়ার পর তার ওপরে ভেজে রাখা কোপ্তা গুলিকে সাজিয়ে, একে একে সামান্য বেরেস্তা, দুধ কেশরের মিশ্রণ, এক ড্রপ আতর, সামান্য বিরিয়ানি মসলা, ঘি ছড়িয়ে তার ওপরে আবার ভাত দিয়ে চাপা দিয়ে বেরেস্তা, বিরিয়ানি মশলা, দুধ কেশরের মিশ্রণ, আতর, ঘি ছড়িয়ে দিতে হবে। চাইলে এরমধ্যে আদু ও ডিম দিতে পারেন। এইভাবে বিরিয়ানির মতো লেয়ার তৈরি করবার পর ১৫-২০ মিনিটের জন্য দমে বসিয়ে দিন। ১৫ থেকে ২০ মিনিট পর গ্যাস বন্ধ করে কিছুক্ষণ স্ট্যান্ডিং টাইমে রাখুন। তারপর গরম গরম পরিবেশন করুন “চিংড়ি কোপ্তা বিরিয়ানি”।

Related Articles