লাইফস্টাইল

Recipe: মাছ-মাংস বাদ দিয়ে একবার চেখে দেখুন দুর্দান্ত স্বাদের টক-ঝাল-মিষ্টি পটলের দোলমা, আর ভুলবেন না এই রেসিপি

পটল এমন একটি সবজি যা সারাবছর পাওয়া যায়। এবং খাওয়া স্বাস্থ্যের পক্ষে খুবই উপকারী। বিশেষত গরমকালে নিজের শরীরের তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণ করার জন্য পটল অত্যান্ত উপকারী। পটল দিয়ে নানান রকমের রান্না করা যায়, পটল ভাজা পটলের তরকারি কিংবা মাছের ঝোলের সাথেও পটল রান্না করে খাওয়া যায়। কিন্তু বাচ্চারা অনেক সময় পটল খেতে পছন্দ করেনা। তবে আজ এমন একটি রেসিপি শেয়ার করতে চলেছি যা বাচ্চারা পছন্দ করবে আবার নিজেরাই পটলের রেসিপি রান্না করে মুখের স্বাদ পরিবর্তন করতে পারবেন। রেসিপিটি নাম নিরামিষ টক-ঝাল-মিষ্টি পটলের দোলমা। চলুন রেসিপিটি শিখে নেওয়া যাক।

উপকরণ–
পটল ৫০০ গ্রাম
আদা বাটা ২ টেবিল চামচ
টমেটো বাটা ৪ টেবিল চামচ
হলুদ গুঁড়ো ১ চা চামচ
ধনে গুঁড়ো ১ চা চামচ
লঙ্কা গুঁড়ো স্বাদমতো
জিরে গুঁড়ো ১ চা চামচ
নুন
মিষ্টি স্বাদ মত
সরষের তেল ১ কাপ
পুর বানানোর উপকরণ
সেদ্ধ করা আলু তিনটি
আমচুর পাউডার (১ টেবিল চামচ)
কিসমিস কোচানো
কাজুবাদাম কোচানো
জল ঝরানো ছানা (৫ টেবিল চামচ)
কাঁচা লঙ্কা কুচি
আম বা যেকোনো টক-ঝাল-মিষ্টি আচার (১ টেবিল চামচ)

প্রণালী–

প্রথমে পটল গুলোর এক দিকের মাথাটা কেটে চামচ দিয়ে ভেতরে ওর ভালো করে বের নিতে হবে। এরপর পুরো বানানোর পালা। সামান্য সরষা তেল গরম করে তাতে সেদ্ধ করা আলু,ছানা, আমচুর পাউডার, কাঁচালঙ্কা আর কাজু, কিশমিশ দিয়ে ভাল করে নাড়াচাড়া করতে থাকতে হবে। এরপর স্বাদমতো নুন এবং চিনি দিতে হবে। যারা ধনেপাতা পছন্দ করেন তারা এর মধ্যে ধনে পাতা কুচি ছড়িয়ে দিতে পারেন। এরপর পটলের ভেতরের দানা বের করে নেওয়ার পর ওই ফাঁকা জায়গায় পুর চামচ দিয়ে ঠেসে ঠেসে ভরে দিতে হবে । এবার কড়াইতে তেল গরম করে তাতে আদাবাটা টমেটো বাটা এবং সমস্ত গুঁড়ো মশলা দিয়ে ভালো করে কষিয়ে নুন মিষ্টি স্বাদ মতন দিয়ে বানিয়ে নিন এবার পুর ভরা পটল গুলি গ্রেভির মধ্যে দিয়ে রান্না করলেই তৈরি নিরামিষ টক-ঝাল-মিষ্টি পটলের দোলমা।

Tags

Related Articles

Close