বিনোদন

এই বিশেষ চায়ে চুমুক দিয়ে শুরু হয় দিন, নীতা আম্বানির এক কাপ চায়ের দাম শুনলে চমকে যাবেন

শুধু চা নয়, ঘড়ি ব্যাগ জুতো থেকে শুরু করে সবকিছুই নীতা আম্বানি নামি ব্র্যান্ডের পণ্য ব্যবহার করে থাকেন

বর্তমানে বিশ্বের দরবারে ভারতের নাম করলেই চলে আসে রিলায়েন্স জিওর কথা আর স্বাভাবিকভাবেই তার সাথে উচ্চারিত হয় রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের কর্ণধার মুকেশ আম্বানির নাম। মুকেশ আম্বানি..বর্তমান সময়ের ধনকুবের তিনি তার বিলাসবহুল জীবন, রাজপ্রাসাদ সবটাই নজর কাড়ে। তবে তার থেকেও বেশী নজর কাড়ে নীতা আম্বানির বিলাসবহুল বৈভবে পূর্ণ জীবনযাত্রা।

বিশ্বের অন্যতম ধনকুবের মুকেশ আম্বানির স্ত্রী নীতা আম্বানি। রাজপত্নী হওয়ার সুবাদে হোক কিংবা মুম্বাই ইন্ডিয়ান ক্রিকেট দলের মালকিন হওয়ার কারণে বৈভবে মোড়া জীবন অতিবাহিত করেন তিনি। আম্বানি পরিবারের রানীর যে সোনা দানা হিরে মানিকের অভাব নেই তা বলাই বাহুল্য। বরাবরই পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ থেকে শ্রেষ্ঠতর জিনিস ব্যবহার করেন নীতা আম্বানি। সম্প্রতি তার ব্যবহৃত এমন এক জিনিসের কথা উঠে এলো যার দাম শুনলে ভিমড়ি খাবেন। তার এই দামী জিনিসটির গল্প শুনলে সাধারণের মাথা ঘুরে যেতে বাধ‍্য।

সকালবেলায় সাধারণ মানুষের মতোই নীতা আম্বানির দিন শুরু হয় চায়ের কাপে চুমুক দিয়ে তবে এ কিন্তু যে সে চা নয়। জানা গেছে এই চায়ের মূল্য লক্ষ্যাধিক। খবর তিনি জাপানি ব্র্যান্ড নোরিতেকের চা ব্যবহার করে যার দাম ৩ লক্ষ টাকা। নরিতেক থেকে তিনি জাপানের প্রাচীনতম ক্রকারী ব্যান্ডের ২২ ক্যারেট সোনা ও প্লাটিনাম খচিত ক্রকারি সেট কিনেছিলেন এর দামও প্রায় দেড় কোটি টাকা। নিতা আম্বানির অন্যতম শখের মধ্যে অন্যতম জাপানের এই প্রাচীন ব্র্যান্ডের চা।

তবে শুধু চা নয়, ঘড়ি ব্যাগ জুতো থেকে শুরু করে সবকিছুই তিনি নামি ব্র্যান্ডের পণ্য ব্যবহার করে থাকেন। এক মধ্যবিত্ত পরিবারেরই সন্তান ছিলেন নীতা আম্বানি, একটি স্কুলে চাকরিও করতেন কিন্তু বর্তমানে ধনী ব‍্যক্তির স্ত্রী হবার পাশাপাশি নিজের কর্ম দক্ষতা ও ব্যবসায়িক বুদ্ধির কারণে আলাদা পরিচিতি করে নিয়েছেন।

Related Articles