বিনোদন

আজও গভীর ক্ষত বহন করছেন পেটে! অতীতের ভয়ংকর স্মৃতি নিয়ে মুখ খুললেন ‘খড়ি’ শোলাঙ্কি

মেঘলা এবং অনুরাগ একটা সময় বাঙালির অন্দরমহল মাতিয়ে রাখতো এই দুটি নাম। সৌজন্য ইচ্ছেনদী। বর্তমানে যদিও সেই মেঘলাই আজ খড়ি। এখন জনপ্রিয় জুটি ঋদ্ধি-খড়ি।
বলা হচ্ছে খড়ি, মেঘলা ওরফে শোলাঙ্কি রায়ের কথা। তার সাবলীল অভিনয় নজর কাড়ে দর্শকদের। সম্প্রতি একটি ছবির মাধ্যমে ফের ভাইরাল হয়ে উঠলেন শোলাঙ্কি। ঠিক ছবির জন্য নয় বরং ছবির পিছনে থাকা তার জীবনের গল্প রীতিমতোন অবাক করলো দর্শকদের।

সম্প্রতি নিজের একটি ছবি শেয়ার করেছিলেন শোলাঙ্কি। পরনে ছিল ক্রপটপ আর নীল ডেনিম। ক্রপটপের জন্য স্বাভাবিকভিবেই উন্মুক্ত ছিল কোমরের একাংশ। আর দর্শকদের চোখ আটকালো তার পেটে কারণ তার পেটে দেখা যাচ্ছে এক ভয়ানক দাগ। এই দাগ যে কোনো অতীতের কোনো ভয়াবহ অধ‍্যায় বা দুর্ঘটনার সাক্ষী তা ঠাউর করতে পেরেছেন সকলেই। কিন্তু আসল ঘটনাটা কি! সেই সম্পর্কে খোলসা করেছেন অভিনেত্রী নিজেই।

এমনকি এই দাগকে দামী গয়নার সাথেই তুলনা করেছেন কারণ এটাই তাকে মনে করিয়ে দেয় তার অতীতে লড়াইয়ের কথা। এদিন ক্যাপশনে নিজের জীবনের একটি মর্মান্তিক অধ‍্যায় নিয়ে মুখ খুলেছেন তিনি। অভিনেত্রী জানিয়েছেন কলেজে পড়ার সময় তার পেটের ওই অংশ আগুনে পুড়ে গিয়েছিল। আর সেইথেকেই ওই দাগ আজও বহন করে চলেছেন তিনি। তিনি এও জানিয়েছেন অনেকেই তাকে প্লাস্টিক সার্জারির মাধ্যমে এই দাগ মুছে ফেলার পরামর্শ দিয়েছিলেন কিন্তু তিনি তার প্রয়োজন অনুভব করেননি।

শোলাঙ্কির কথায়- “কারোর কাছে যেমন সবচেয়ে সুন্দর গয়না, তেমনি শরীরের এই দাগগুলো আমি ধারণ করেছি।” এই দাগ আমাকে অতীতের সেই গভীর আঘাতের কথা মনে করিয়ে দেয় যার বিরুদ্ধে তীব্র লড়াই করে জয় পেয়েছি। যা ঘটে তা কোনো না কোনো কারণেই ঘটে আর তার জন্যই আমি আজ আমার মত হতে পেরেছি।” যেখানে হালফিলের নায়িকারা খুঁত ঢাকতে ব‍্যস্ত সেখানে তিনি ব‍্যতিক্রমী। তার কাছে দাগ লজ্জার না বরং যুদ্ধ জয়ের প্রতীক।