দেশনিউজ

দিনে পাঁচবার হনুমান চল্লিশা পাঠ করলে ধ্বংস হবে করোনাঃ প্রজ্ঞা ঠাকুর

হু হু করে দেশজুড়ে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। মারণ ভাইরাসের হাত থেকে দেশবাসীকে বাঁচাতে চেষ্টার ত্রুটি রাখছে না সরকার। কিন্তু এরই মাঝে নানা লোকের নানা মত। কেউ এই অদৃশ্য অজানা করোনা ভাইরাসকে শত্রুর চোখে দেখছে। আবার কেউ বলছে ঝাড়ফুঁক করতে। আর এরই মাঝে আজব দাওয়াই বিজেপি সাংসদ প্রজ্ঞা সিং ঠাকুরের। ‘হনুমান চল্লিশা’ পড়লে নাকি দূর হবে করোনা। বিজেপির সংসদের মন্তব্য ঘিরে জল্পনা তুঙ্গে।

করোনা তাড়াতে উদগ্রীব নেতাকর্মীরা। কিছুদিন আগে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অর্জুন রাম মেঘোয়াল দাবি জানিয়েছিলেন ভাবিজি পাঁপড় খেলেই নাকি বিদায় নেবে করোনা। আর এবার আরও এক কাঠি উপরে গিয়ে নতুন টোটকা বিজেপি সাংসদ প্রজ্ঞা সিং ঠাকুরের। এই প্রসঙ্গে শনিবার বিজেপি সাংসদের মন্তব্য, ‘ আজ থেকে ৫ অগাস্ট পর্যন্ত দিনে পাঁচবার হনুমান চল্লিশা পড়ুন তাহলে করোনা দূর হয়ে যাবে’।

সাংসদ প্রজ্ঞা সিং টুইট করে লেখেন, ‘মধ্যপ্রদেশের বিজেপি সরকার সংক্রমণ ঠেকাতে উদ্যোগী। ৪ অগাস্ট অবধি লকডাউন বলবৎ রয়েছে। যদি গোটা দেশের হিন্দুরা একস্বরে হনুমান চল্লিশা পড়েন তবে করোনা দূর হবেই। এটা ভগবান রামের নিজের প্রার্থনা’। বলে রাখা ভালো ৫ অগাস্ট অযোধ্যায় রামমন্দিরের ভূমিপুজো নিয়ে প্রস্তুতি তুঙ্গে। খোদ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির উপস্থিত থাকার কথা। এমনকি ভূমি পুজোয় ৪০ কেজি ওজনের রুপোর পাত দেওয়া হবে বলেও শোনা যাচ্ছে। ওই রুপার পাত দিয়ে তৈরি হবে রাম মন্দিরের ভিত।

সূত্রের খবর, মন্দিরের প্রথম তলের উচ্চতা হতে পারে ১৮ ফুট উঁচু। দ্বিতীয় তলের উচ্চতা ১৫ ফুট ৯ ইঞ্চির। প্রথম তলায় থাকবেন রামলালা বিরাজমানের মূর্তি। এবং দ্বিতীয় তলায় রাম-লক্ষ্মণ-সীতার মূর্তি। যা নিয়ে ইতিমধ্যেই তৈরী হয়েছে অনেকের মনে নানা ধরনের উত্তেজনা। আর এরই মাঝে সেই উত্তেজনা উস্কে দিয়ে বিজেপি সাংসদ বলেন, ‘আসুন মানুষের নিরোগ শরীর কামনায় প্রার্থনা করি। আজ ২৫ জুলাই থেকে আগামি ৫ অগাস্ট পর্যন্ত সন্ধ্যা ৭টায় দিনে পাঁচবার হনুমান চল্লিশা পড়ি। আর ৫ অগাস্ট প্রতি ঘরে প্রদীপ জ্বালিয়ে রামলালাকে স্মরণ করি’।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Close