বিনোদন

TRP-র লোভে সমাজকে নষ্ট করছে Didi No1, অবশেষে মুখ খুললেন রচনা ব্যানার্জি

সুদীর্ঘ এগারো বছর ধরে স্বমহিমায় চলে আসছে জনপ্রিয় রিয়েলিটি শো দিদি নাম্বার ওয়ান। এত বছর ধরে এই রিয়েলিটি শো এর জনপ্রিয়তা এতটুকু কমেনি। দীর্ঘ ১১ বছর ধরে এই শো মহিলাদের ঘুরে দাঁড়ানোর গল্প শুনিয়েছে। এই শোয়ের বিভিন্ন এপিসোডের মাধ্যমে ফুটে ওঠে কিভাবে মহিলারা নিজেদের জীবন সংগ্রামে জয়ী হয়েছেন। অত্যাচার ও নানা প্রতিকূলতাকে জয় করে ঘুরে দাঁড়িয়েছেন। এই রিয়েলিটি শো বহু মহিলাকে অনুপ্রেরণা জুগিয়েছে ঘুরে দাঁড়ানোর। তবে সম্প্রতি এই শো নিয়ে উঠেছে চর্চা, অনেকে তুলেছেন শো বন্ধের ডাক।

জি বাংলায় দিদি নাম্বার ওয়ান একটি অতি পরিচিত রিয়েলিটি শো। যেখানে প্রতিদিন চারজন করে মহিলা প্রতিযোগীর জীবন সংগ্রামের গল্প তুলে ধরা হয়। আর এই জীবন সংগ্রামের গল্পে মাঝেমধ্যেই উঠে আসে তাদের শ্বশুর বাড়ি, স্বামীর অত্যাচারের কথা, বিভিন্ন ডিভোর্সি মহিলার ঘুরে দাঁড়ানোর গল্প। তবে এই গল্পের প্রতি প্রতিবাদ জানিয়েছেন এক প্রতিযোগির প্রাক্তন স্বামী। আর এই নিয়েই সোশ্যাল মিডিয়া, এখন তোলপাড়।

সম্প্রতি দিদি নাম্বার ওয়ানে এক ডিভোর্সী প্রতিযোগী তার প্রাক্তন স্বামী এবং শ্বশুরবাড়ির অত্যাচারের কথা জানিয়েছিলেন। তবে মেয়েটির প্রাক্তন স্বামী জানিয়েছেন দিদি নাম্বার ওয়ান এসব মিথ্যাচার করছে। এর প্রমাণস্বরূপ তিনি জানিয়েছেন, তার প্রাক্তন স্ত্রী যে সমস্ত কথা সকলের সামনে জানিয়েছেন তাতে তিনি অনেক মিথ্যে কথা বলেছেন এবং নিজের কার্যকলাপ গুলি গোপন করে গেছেন। সুতরাং দিদি নাম্বার ওয়ান শো শুধুমাত্র একতরফা কথা শুনে বিচার করছেন, যার ফলে বহু পুরুষের সাথেও অন্যায় হচ্ছে। এই ব্যক্তির সমর্থনে বহু মানুষকে কথা বলতে শোনা গেছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

তবে এবার এই কথার বিরুদ্ধে মুখ খুলেছেন এই শোয়ের সঞ্চালিকা স্বয়ং রচনা ব্যানার্জি। রচনা ব্যানার্জি জানিয়েছেন, “দীর্ঘ ১১ বছর ধরে এই শো চলেছে। প্রতিদিন চারজন করে প্রতিযোগী অংশ নেয় এই শোয়ে। হাজার হাজার প্রতিযোগী তো আর মিথ্যে বলতে পারেননা। তাদের চোখের জল মিথ্যে হতে পারে না। প্রত্যেকেই যে অভিনয় করছে তা তো হতে পারেনা। তবে হয়তো হাজার জনের মধ্যে একজন মিথ্যে বলতে পারে, কিন্তু সকলে নয়”। কিন্তু নেটিজেনদের মতে, দিদি নাম্বার ওয়ান একতরফা শুধু মেয়েদের অত্যাচারের দিকটাই তুলে ধরছেন। বহু মেয়েদের দ্বারাও পুরুষেরা নির্যাতিত হচ্ছেন কিন্তু সেসব তুলে ধরে না দিদি নাম্বার ওয়ান। তাই নেটিজেনদের একাংশ এই শো বন্ধের ডাক দিয়েছেন।