×
Jannah Theme License is not validated, Go to the theme options page to validate the license, You need a single license for each domain name.

কী-বোর্ডের অক্ষরগুলি কেন এলোমেলো থাকে? প্রায় বেশিরভাগ মানুষই উত্তর দিতে পারেন নি

A,B,C,D সেই ছোট্টবেলা থেকে এই ভাবেই তো অ্যালফাবেট পড়ে এসেছি মুখস্তও করেছি কিন্তু কিবোর্ড এর ক্ষেত্রে অ্যালফাবেট এরকম এলোমেলো হয়ে যায় কেন! কি হতো যদি কম্পিউটার বা ল্যাপটপে ধারাবাহিকভাবেই সাজানো থাকতো অ্যালফাবেট গুলি? এই প্রশ্ন নিশ্চয়ই আপনার মনে বহুবার এসেছে কিন্তু উত্তর কি পেয়েছেন? আজকে এই প্রতিবেদনে এই উত্তরই আপনাদের জানাবো।

জানলে অবাক হবেন যা আপনার কাছে এলোমেলো তা কিন্তু মোটেও এলোমেলো নয়। বরং একটা নির্দিষ্ট বিন্যাস মেনেই কিবোর্ড এর অক্ষরগুলিকে সাজানো হয়েছে। কিন্তু বিন্যাসটি বনার্নুক্রমিক কেন হয়নি সেই উত্তরই জেনে নিন।মূলত টাইপ রাইটার যন্ত্র থেকেই কিবোর্ড ব্যবহার শুরু হয়েছিল। কিবোর্ড আবিষ্কারের সময় এই টাইপ রাইটার ছিল এক মেকানিক্যাল ডিভাইস। সমস্ত অক্ষর পর পর থাকলে যন্ত্র জ্যাম হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকার কারণেই অক্ষরগুলি উল্টোপাল্টা ভাবে সাজানো হয়।

এছাড়াও এর দ্বিতীয় কারণটি হল Ergonomics অর্থাৎ সমস্ত অক্ষর পর পর থাকলে টাইপ করার সময় আমাদের আঙুল ব্যথা হয়ে যেত ফলে গতিও কমে যেত। তাই বেশিরভাগ শব্দ লেখার সময় ভাওয়াল এবং কনসোনেন্ট গুলি যাতে কাছে থাকে সেই ব্যবস্থা করা হয়েছে।

তবে এগুলি কিন্তু একমাত্র কারণ নয়, কম্পিউটারের কিবোর্ডের উল্লেখযোগ্য বিষয় হলো F ও J অক্ষরের নিচে থাকা দাগ। যারা নিয়মিত টাইপিং এর কাজ করেন তাদের চোখ কম্পিউটারের পর্দাতেই আবদ্ধ থাকে। সেক্ষেত্রে কিবোর্ডের দিকে না তাকিয়ে অক্ষর চেনার জন্য নিচে এমন দাগ রাখা হয়।

একই কারণে 5 সংখ্যার নিচেও দাগ রয়েছে। আসলে টাইপিং এর নিয়ম অনুযায়ী বাঁহাতে তর্জনী থাকবে F এর ওপর আর ডান হাতে তর্জনী থাকবে J এর ওপর আর স্পেসবারের ওপর থাকবে বুড়ো আঙ্গুল। এইভাবে টাইপ করলে দীর্ঘক্ষণ ধরে টাইপ করতে সুবিধা হয়, গতিও বৃদ্ধি পায়। একারণেই সর্বাধিক ব্যবহৃত কোয়ার্টি কিবোর্ডে অক্ষর সমূহ বর্ণমালা ক্রম অনুসারে পরপর নেই।