অফবিটভাইরাল ভিডিও

এই যুবতীর হাতে বসে অবিকল মানুষের ভাষায় কথা বলে তাক লাগাল কাঁক, ঝড়ের গতিতে ভাইরাল ভিডিও

টিয়া, কাকাতুয়া, ময়না প্রভৃতি পাখি সাধারণত পোষ মেনে কথা বলতে পারে। তবে আপনি কি কখনো কাক কে কথা বলতে দেখেছেন? তাও আবার আপনার মাতৃভাষা বাংলায়! এমন আশ্চর্য ঘটনাটি ঘটেছে বাংলাদেশের রাজশাহী জেলায়। রীতিমতো নিজের পোষ্য কাকটিকে বাংলা ভাষায় কথা বলতে শিখিয়ে ফেলেছেন এক যুবতী।

কোন একদিন রাত্রে প্রবল ঝড়ে একটি কাকের ছানা এই যুবতীর বাড়িতে উড়ে এসে পড়ে। সেই পক্ষীশাবকটিকে যুবতী তার পরম স্নেহ,যত্নে বড় করে তোলে। প্রিয় পোষ্যটির নাম দেয় কামিনী। কাক টিকে তিনি নিজের হাতে করে একেবারে মানুষ করছেনই বটে কারণ কাকটি একদম মানুষের মতোই অনর্গল বাংলা ভাষায় কথা বলতে পারে।

সম্প্রতি ইউটিউবে ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, যুবতীর ঘাড়ে,পিঠে,মাথায় উঠে কাকটি বোঝানোর চেষ্টা করছে তার যুবতীটির প্রতি ভালোবাসা। তাকে শিকল দিয়ে বেঁধে রাখার প্রয়োজন হয় না। শিকড় ছাড়া আশরাফ আলী পরিবারের এক সদস্য হয়ে উঠেছে সে। ছোট থেকেই তাকে পোষ মানাতে মানাতে শিখিয়ে দেয়া হয়েছে বাংলা ভাষা।

এই আশ্চর্য কাকটি কে দেখতে আশরাফ আলীর বাড়িতে প্রায়ই রিপোর্টারদের ভিড় লেগে থাকে। এদিন কোন এক জনৈক ব্যক্তি কাকটিকে বাংলা কথা বলা অবস্থায় ভিডিও করে সোশ্যাল মিডিয়ায় আপলোড করলে এটি ভাইরাল হয়ে পড়ে। নানা ধরনের গৃহপোষ্য পাখিদের নিজস্ব ভাষায় কথা বলার ট্রেনিং দেয়া হলেও এর আগে কখনো কাক কে এভাবে বাংলা ভাষায় কথা বলতে দেখা যায়নি।