×

বিরাট দুঃসংবাদ সুরাপ্রেমীদের জন্য! পুজোর আগেই একধাক্কায় অনেকটাই দাম বাড়লো মদের

জানা যাচ্ছে দেশি মদের দাম বাড়তে পারে ২০ শতাংশ অন্যদিকে বিদেশি মদের দাম বাড়তে পারে ৭ থেকে ১০%

আর কিছুদিনের অপেক্ষা তারপরেই বাঙালির সেই প্রতীক্ষিত দিনটি আসতে চলেছে। ইতিমধ্যে কাশফুলের বন, মাঝে মাঝে শরতের আকাশ জানান দিচ্ছে দুর্গাপুজো আসছে, শুরু হয়েছে কেনাকাটাও। আসলে দুর্গাপূজা মানে তো শুধু পুজো নয় সঙ্গে নতুন জামা, জমিয়ে আড্ডা বন্ধুদের সাথে গল্প গুজব আর দেদার খানাপিনা।

আর খানাপিনার কথা বললেই পিনার প্রসঙ্গত চলে আসে। পিনা বললেই সূরার কথা আসবেই আর সূরা প্রেমীদের কাছে যেকোনো উৎসবই সুরাবিহীন যেন প‍্যানসা। কিন্তু পুজোর আগে সেই সুরা প্রেমীদের জন্যই খারাপ খবর। পুজোর মরসুমে সুরাপ্রেমীদের পকেটে কিন্তু এবার টান পরতে চলেছে।

উৎসবের আবহে বাংলায় প্রতিবছরই মদের চাহিদা বৃদ্ধি পেয়ে থাকে কিন্তু এইবারের দুঃসংবাদ পুজোর মরশুমে মদের দাম বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্যের আবগারি দপ্তর। রাজ্য সরকারের আবগারি দপ্তর সূত্রের খবর, দেশি ও বিদেশি দুই ধরনের মদের দাম বাড়তে চলেছে। জানা যাচ্ছে মরশুমে। জানা যাচ্ছে দেশি মদের দাম বাড়তে পারে ২০ শতাংশ অন্যদিকে বিদেশি মদের দাম বাড়তে পারে ৭ থেকে ১০%

জারি করে দেয়া হয়েছে আগামী ১৫ সেপ্টেম্বর থেকেই এই নতুন দাম কার্যকর হবে। পুজোর মুহূর্তে সরকারের এমন সিদ্ধান্তে যথেষ্ট চিন্তিত সুরা প্রেমীরা। এই খবরে যে মোটেও খুশি হতে পারেননি তারা তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। তাই যদি খানাপিনায় সূরাকে তালিকায় রাখতেই হয় তবে বর্ধিত মূল্যে কিনতে হবে সমস্ত দেশি ও বিদেশি মদ।

প্রসঙ্গত এই বিষয়ে নবান্ন, জেলায় জেলায় বিজ্ঞপ্তি পাঠিয়ে দিয়েছে যে কোন মদের দাম কত টাকা করে বৃদ্ধি পেতে পারে। তথ্য বলছে ৬০০ মিলির নতুন দাম ১৫৫ টাকা, 375 মিলির দাম হতে চলেছে ১০৫ টাকা, ৩০০ মিলির দাম ৮৫ টাকা, 180 মিলির দাম 50 টাকা। বিদেশি মদ গুলির দাম এখনো অব্দি স্পষ্ট জানা যায়নি।

Related Articles