লাইফস্টাইল

Beauty Tips: ত্বকের রঙ হবে ঝলমলে উজ্জ্বল, বাড়িতেই বানিয়ে নিন চমৎকারী কফির ফেস প্যাক

ভারতীয় উপমহাদেশে ফর্সা হতে কে না চায়! প্রতিদিনের ধূসর ধুলো ময়লা ছাড়াও গৃহবধূদের সহ্য করতে হয় উনানের তাপ। ফলে ত্বকে একপ্রকার কাল পরদ পড়ে যায়। তবে কালো দাগ ওঠানো কিন্তু বেশ মুশকিল। এই কালো দাগ থেকে মুক্তি পেতে অনেকেই বাজারে নানান নামিদামি ব্র্যান্ডের ক্রিম ব্যবহার করে থাকে তা তাৎক্ষণিকভাবে আপনার ত্বককে ফর্সা করে তুললেও দীর্ঘমেয়াদে আপনার ত্বকের ভীষণ ক্ষতি করে।

তবে আপনি কি জানেন আপনার রান্নাঘরেই হয়েছে এমন এক উপাদান যা দিয়ে আপনি চমৎকার এক ফর্সা হওয়ার ক্রিম বানিয়ে ফেলতে পারেন! আজ্ঞে হ্যাঁ ঠিকই শুনেছেন! আপনার রান্নাঘরে থাকা কফি হলো এক ধরনের স্ক্রাবার ও লাইটনিং এজেন্ট। যা আপনার ত্বকের মৃত কোষগুলি দূর করার পাশাপাশি আপনার ত্বককে উজ্জ্বল করতে সাহায্য করে। তবে চলুন জেনে নিন পুজোর আগে নিজের ত্বকের জেল্লা বাড়াতে কিভাবে তৈরি করবেন এই কফি ক্রিম।

এই ক্রিমটি তৈরি করতে আপনাদের যে সকল উপকরণ গুলি লাগবে সেগুলি হল কফি পাউডার, ভিটামিন ই ক্যাপসুল, গোলাপ জল এবং এলোভেরা জেল। বাড়িতে যদি কারো গোলাপ গাছ বা এলোভেরা গাছ থাকে তাহলে তো কোন কথাই নেই। প্রথমে গোলাপ গাছ থেকে কয়েকটি গোলাপ তুলে নিয়ে সেটিকে গরম জলে ভালোমতো ফুঁটিয়ে ছেকে নিলেই তৈরি হয়ে যাবে গোলাপজল। গোলাপ জলের মধ্যে গাছ থেকে তুলে আনা অ্যালোভেরা জেল অ্যাড করতে হবে। এরপর মিশ্রণটির মধ্যে দুটি ভিটামিন ই ক্যাপসুল কেটে মিশ্রনটিকে খুব ভালোভাবে মিশিয়ে নিতে হবে।

ব্যাস তৈরি! চমৎকার জেল্লাদার ত্বকের জন্য কফি ফেসক্রিম। প্রতিদিন শুতে যাওয়ার আগে কিংবা সারাদিনে একবার মুখ পরিষ্কার করে এই ক্রিমটি টানা এক মাস ব্যবহার করতে হবে। এক মাস ব্যবহার করার পরেই আপনি বুঝতে পারবেন আপনার ত্বকে কতটা পরিবর্তন এসেছে। তবে মনে রাখতে হবে এই ক্রিমটি কে রুম টেম্পারেচারে নয় সর্বদা ফ্রিজের মধ্যে কন্টেইনারে রেখে দিতে হবে। তবে আর দেরি কিসের আজই বানিয়ে ফেলুন দুই টাকার কফি পাউডার দিয়ে চমৎকার এই ফর্সা হওয়ার ক্রিম।

Tags

Related Articles

Close