লাইফস্টাইল

Recipe: দুর্দান্ত স্বাদের নারকেল চিংড়ি রান্নার রেসিপি, শিখে নিন খুবই সহজ রন্ধনপ্রণালী

বাঙালি ঘরের কিছু রান্না হয়েছে যেগুলি যুগ যুগ ধরে ঘরানার নিয়ম মেনে চলে আসছে। মাছ-মাংসের পড়ই বাঙালির সবথেকে প্রিয় যে খাদ্যটি সেটি হল চিংড়ি। ঘটি বাঙাল নির্বিশেষে চিংড়ি নানান পদ সকলেরই ভীষণ প্রিয়। বিশেষত কিছু কিছু রান্নায় এই মহাব্যঞ্জনটি যোগ করলে রান্নার স্বাদ বেড়ে দ্বিগুণ হয়ে যায়। এতদিন তো চেটেপুটে চিংড়ির মালাইকারি খেলেনই? আসুন আজ শিখে নিন চিংড়ির আর এক অনন্য স্বাদের রেসিপি যা একবার খেলে আপনার মুখে লেগে থাকবে। আজকে আপনাদের জন্য যে সহজ রেসিপিটি আমরা নিয়ে এসেছি সেটির নাম “নারকেল চিংড়ি”। আসুন জেনে নেওয়া যাক এই নারকেল চিংড়ি বানাতে কি কি উপকরণ লাগবে এবং এর রন্ধনপ্রণালী!

উপকরণ- চিংড়ি-একটু বড় মাপের চিংড়ি হলে ভালো হয়। পেঁয়াজ, আদা, রসুন বাটা ও টমেটো বাটা। কাঁচা লঙ্কা কুচি ও ধনেপাতা কুচি। হলুদ, লঙ্কা ও গরম মশলা গুঁড়ো। নারকেল কোড়া ও নারকেল দুধ। সর্ষে বাটা। পরিমাণমত ঘি, পরিমান মত নুন, সামান্য চিনি ও রান্নার তেল।

রন্ধনপ্রণালী- প্রথমেই বাজার থেকে কিনে আনা চিংড়ি মাছ গুলির শিরা ছাড়িয়ে ভালো মতো পরিষ্কার করে সেটিকে ধুয়ে নিতে হবে। এরপর নুন হলুদ মাখিয়ে কিছুক্ষণ রেখে চিংড়ি মাছ গুলি গরম তেলে কড়াইয়ে ভালো মতো করে ভেজে নিতে হবে। চিংড়ি মাছ গুলি ভাজা হয়ে গেলে সেগুলিকে তেল থেকে সরিয়ে সে তেলের মধ্যে পেঁয়াজ, আদা, রসুন বাটা দিয়ে ভালো মত করে নাড়াচাড়া করতে হবে। পেঁয়াজবাটা কিছুটা বাদামী হয়ে এলে এরমধ্যে টমেটো বাটা অ্যাড করতে হবে এবং সাথে দিতে হবে সরষে বাটা এবং কাঁচা লঙ্কা কুচি।

মসলাটি ভালো মতো করে কষিয়ে নিয়ে এরমধ্যে অ্যাড করুন পূর্ব থেকে ভেজে রাখা চিংড়ি মাছ গুলি এবং সাথে নারকেল কোরানো ও নারকেল দুধ। মিশ্রনটিকে ভালো মতো মিশিয়ে নিয়ে কড়াইয়ে ঢাকনা দিয়ে 5 থেকে 7 মিনিট ফুটতে দিন। মনে রাখতে হবে গ্যাসের আচ যেন হালকা থেকে মাঝারি থাকে। এরপর ঢাকা সরিয়ে ওপর থেকে ঘি এবং গরম মশলা গুঁড়ো দিয়ে গরম গরম নামিয়ে সার্ভ করুন নারকেল চিংড়ি।

Tags

Related Articles

Close