বিনোদন

মৃত্যুর আগে এমনই কাজ করে গেল সুশান্ত, ভেঙে দিল বলিউডের দাপুটে খানদের সব রেকর্ড

দিল বেচারা সিনেমার ট্রেলার মুক্তির 24 ঘন্টার মধ্যে অ্যাভেঞ্জার্সের পিছনে ফেলে দিয়ে সর্বকালের সেরা রেকর্ড গড়েছিল। শুক্রবার ওটিটি প্লাটফর্মে মুক্তি পেয়েছে সিনেমাটি। সুশান্ত সিং রাজপুতের শেষ ছবিটি দেখার অপেক্ষায় ছিলেন ফ্যানেরা। দ্য ফল্ট ইন আওয়ার স্টারস যারা দেখেছেন তারা ওই ছবি দেখার আশায় বসেছিলেন তার একমাত্র কারন সুশান্ত সিং রাজপুতের অভিনয় ও তাকে শেষবার স্ক্রিনে দেখার এক বিষাদময় আনন্দ।

আর এই সিনেমায় দর্শকের মনে এমন ভাবে নাড়া দিয়ে গেল যে ওটিটি প্ল্যাটফর্মের ময়দানে তথা ভারতের সিনেমা ইতিহাসে তৈরী করল রেকর্ড। মুক্তির 3 ঘন্টার মধ্যে INTERNET MOVIE DATABASE এ সর্বকালের সেরা রেকর্ড করলো সুশান্তের দিল বেচারা। সিনেমার শুরুতেই যেমনটা বলা হয়েছিল “এক থা রাজা এক থা রানী দোনোমোনো মার গায়া খতম কাহিনী” ছবিটি ঠিক ততটাই কিন্তু তার মাঝে জীবনকে উপভোগ করার পাঠ দিল গল্পের প্রতিটি ইঞ্চিতে। অদ্ভুতভাবে যেই মানুষটি প্রত্যেকটা সিনেমায় বাঁচতে থাকার, জীবন উপভোগ এর পাঠ শিখিয়ে দিয়েছে তিনিই নিজে নিজেকে শেষ করে দিলেন, শেষ সাফল্য টুকু দেখে যেতে পারলেননা।

গল্পের বিষয় নায়িকা থাইরয়েড ক্যান্সার সর্বক্ষণ অক্সিজেন বয়ে বেড়াতে হয়। রেগি মিলারের জার্সিতে তার স্বপ্নের রাজকুমারের সাথে প্রথম দেখা হয়। কিন্তু অত্যন্ত চাপে থাকা কিজি কিছুতেই বুঝতে পারেন না তার জীবনকে কিভাবে এগিয়ে নিয়ে যাবেন আর সেখানে সূর্যের রশ্মির মতো আলোকপাত হয় ম্যানির ওরফে সুশান্তের। আর ম্যানিই শেখায় কিজিকে জীবন উপভোগ করতে।

শুক্রবার ঠিক সন্ধ্যে সাতটা গোটা দেশ রুদ্ধশ্বাসে অপেক্ষা করছিলেন এই মুহুর্তের জন্য,সুশান্তের শেষ ছবি দিল বেচারার জন্য। আর তা দেখার পরে গোটা দেশ যেন একসাথে আবেগে ভাসলেন হাসলেন কাঁদলেন আর বুকের মধ্যে রয়ে গেল শূন্যস্থান। শেষমেষ সিনেমা যেন হয়ে উঠল তার জীবনের প্রতিচ্ছবি।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Close