নিউজরাজ্য

রাজ্যে বিজেপি জিতলে কে হবে বাংলার মুখ‍্যমন্ত্রী? জল্পনার অবসান ঘটালেন কৈলাস বিজয়বর্গীয়

২০২১ বিধানসভা নির্বাচন সামনেই। বাংলায় বিজেপি-র মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী কে হবেন, তা নিয়ে জল্পনা তুঙ্গে। বিধানসভা নির্বাচন যত এগিয়ে আসছে, ততই ধুন্ধুমার হচ্ছে সব রাজনৈতিক দলগুলি৷ এ রাজ্যে বিজেপির মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী কে হবেন সে প্রসঙ্গে দিলীপ ঘোষ, শুভেন্দু অধিকারী থেকে শুরু করে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় প্রভৃতি নাম উঠে এসেছিল। যদিও সেই জল্পনায় জল ঢেলে দিলেন এ রাজ্যের বিজেপি-র পর্যবেক্ষক কৈলাস বিজয়বর্গীয়। বুধবার তিনি স্পষ্ট জানিয়ে দিলেন, মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী কে হবেন ভোটের আগে জানানো হবে না৷ ভোটের আগে বিজেপি-র প্রধান মুখ তাই নরেন্দ্র মোদিই৷ তিনি জানিয়েছেন, যে রাজ্যগুলিতে বর্তমানে বিজেপি ক্ষমতায় নেই, সেখানে মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী কে হবেন তা জানানো হবে না।

কৈলাস বিজয়বর্গী জানান, বিজেপি ক্ষমতায় এলে দলের শীর্ষ নেতৃত্ব এবং নির্বাচিত বিধায়করা মিলে ঠিক করবেন এই রাজ্যে কে মুখ্যমন্ত্রী হবেন৷ তবে মুখ্যমন্ত্রী যেই হোন না কেন, উন্নত বাংলা উপহার দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন বিজেপি নেতা। রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, উল্লেখ্য দলের মধ্যে কোন্দল সৃষ্টি হতে পারে বলে ভোটের আগে কোনও একজন নেতার নাম মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে ঘোষণা করে দিলে দলের মধ্যেই কোন্দল সৃষ্টি হতে পারে৷ যার ফলে মোদি ম্যাজিকে আস্থা রেখেই পশ্চিমবঙ্গে জিততে চাইছে বিজেপি।

প্রসঙ্গত, ২০ ডিসেম্বর রাজ্যে এসে অমিত শাহ মন্তব্য করেন, বাংলার কোনও ভূমিপুত্রই মুখ্যমন্ত্রী হবেন। সদ্য শুভেন্দু অধিকারী দলে যোগ দেওয়ার সময়ই অমিত শাহের এই মন্তব্যে জোর জল্পনা ছড়িয়েছিল৷ একই সঙ্গে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের নামও উঠে এসেছিল। দিন কয়েক আগে বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁ মন্তব্য করেন, বিজেপি জিতলে দিলীপ ঘোষ মুখ্যমন্ত্রী হবেন৷ যে মন্তব্যকে ভাল ভাবে নেয়নি দলীয় শীর্ষ নেতৃত্ব এবং সৌমিত্র খাঁ-কে সতর্কও করা হয়।

অন্যদিকে, তৃণমূল সাংসদ সৌগত রায় কটাক্ষ করে জানিয়েছেন, আসলে বাংলায় মুখ্যমন্ত্রী করার মতো বিজেপির কোনও যোগ্য নেতাই নেই। তাই বাইরে থেকে এতজন নেতাকে নিয়ে এখানে আসতে হচ্ছে তাদের।

Tags

Related Articles

Close