আন্তর্জাতিকনিউজ

পাকিস্তানে অত্যাচারিত হিন্দু-শিখ-খ্রিস্টানরা, রাষ্ট্রসংঘে পাকিস্তানকে চরম অপমান ভারতের

সন্ত্রাসবাদের মূল কেন্দ্র হল এই পাকিস্তান। এখানে অত্যাচারিত হচ্ছেন হিন্দু, শিখ, খ্রিস্টানরা।

ফের পাকিস্তানের বিরুদ্ধে গর্জে উঠল ভারত। এবার সন্ত্রাসবাদ ও সংখ্যালঘু নির্যাতন নিয়ে রাষ্ট্রসংঘে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে মন্তব্য করল ভারত। মঙ্গলবার রাষ্ট্রসংঘের মানবাধিকার পরিষদের ৪৫তম অধিবেশনে ভারতের প্রতিনিধি বলেন, “সন্ত্রাসবাদের মূল কেন্দ্র হল এই পাকিস্তান। এখানে অত্যাচারিত হচ্ছেন হিন্দু, শিখ, খ্রিস্টানরা। জম্মু ও কাশ্মীরে মানবাধিকার লঙ্ঘনের যে অভিযোগ পাকিস্তান করেছে তা সম্পূর্ণ মিথ্যা।”

এর পাশাপাশি ওই প্রতিনিধি এটাও বলেন,” পাকিস্তানে সংখ্যালঘুদের মানবাধিকার নেই, আর যে দেশে সংখ্যা লঘুদের অধিকার দেওয়া হয় না, সেই দেশ অন্য কোনো দেশকে উপদেশ দেওয়া মানায় না। ধর্মের অবমাননা আইন, জোর করে ধর্ম পরিবর্তন, গুপ্তহত্যা, গোষ্ঠী সংঘর্ষ, ধর্ম বৈষম্য এগুলি করে সংখ্যালঘুদের উপর অত্যাচার চালাচ্ছে পাকিস্তান। বহু হিন্দু ও শিখ নারীকে অপহরণ করে ধর্ম পরিবর্তন করেছে পাকিস্তান।”

এছাড়া তিনি এদিন পাকিস্তনের বালোচিন্তানের ঘটনা নিয়েও সরব হয়েছেন। তিনি একদম জোর গলায় বলেছেন,” বালোচিস্তানে প্রতিদিনই কোনও না কোনও পরিবার নিজেদের প্রিয়জনকে হারাচ্ছে। সাংবাদিক ও বিরোধী নেতাদের আওয়াজ বন্ধ করতেও নানা পদক্ষেপ নেয় পাকিস্তান। এছাড়া সিন্ধু ও খাইবার পাখতুনখোয়ায় সংখ্যালঘুদের উপর অত্যাচার চালাচ্ছে।”এদিন ইসলামিক দেশগুলির সংগঠন OIC ও তুরস্ককে ভারত সাফ জানিয়ে দিয়েছে যে জম্মু ও কাশ্মীর দেশের অভ্যন্তরীণ বিষয় এই নিয়ে তৃতীয় কোনও পক্ষের সাথে কোনও রকম আলোচনা করতে চায় না ভারত।

Tags

Related Articles

Close