নিউজবিনোদন

সুশান্তের মৃত্যু তদন্তে চাঞ্চল্যকর মোড়, হলফনামা মুম্বাই পুলিশের

যত দিন যাচ্ছে ততই যেন রহস্য ঘনীভূত হচ্ছে সুশান্ত সিং রাজপুত মৃত্যু কাণ্ডে। সুশান্তের মৃত্যুর পর থেকেই তোলপাড় বলিউড। আত্মহত্যা নাকি খুন সেই প্রশ্নের উত্তর জানতে আজও মুখিয়ে রয়েছে সুশান্ত অনুরাগীরা। এরই মাঝে সুশান্ত মৃত্যু মামলায় নিল নয়া মোড়।

গত ১৪ জুন সুশান্ত অনুরাগীদের মাথায় ভেঙে পড়ে আকাশ। ওইদিন সকলে জানতে পারে সব মায়া ত্যাগ করে পরলোকে গমন করেছেন বলিউড হার্টথ্রব সুশান্ত সিং রাজপুত। বান্দ্রায় নিজের ফ্ল্যাট থেকেই উদ্ধার হয়েছিল অভিনেতার নিথর দেহ। ইতিমধ্যেই সুশান্ত মৃত্যুরহস্য ভেদে নেমে মাদক যোগের হদিস পায় তদন্তকারীরা। তবে এবার প্রশ্ন উঠছে সুশান্ত মৃত্যুতে কি সর্ষের মধ্যেই ছিল ভূত?

বম্বে হাইকোর্টে হলফনামা দিয়ে মুম্বাই পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে সুশান্তের দুই দিদি প্রিয়ঙ্কা সিং এবং মিতু সিং সুশান্তকে হতাশা এবং উদ্বেগ কাটানোর ওষুধ খাওয়ার পরামর্শ দিয়েছিলেন কোনও রকম পরীক্ষা না করেই। আর তারপরেই অভিনেতার মানসিক অবস্থার অবনতি ঘটে। সুশান্তের দুই দিদির বিরুদ্ধে নিয়ম মেনেই এফআইআর দায়ের হয়েছে বলে জানিয়েছে মুম্বাই পুলিশ। মুম্বাই পুলিশ হলফনামায় জানিয়েছে, দিল্লির চিকিৎসকের সাহায্য নিয়ে ভুয়ো প্রেসক্রিপশন পাঠিয়েছিলেন ২ আবেদনকারী, যেখানে সুশান্ত সিং রাজপুতের জন্য উগ্বেগ এবং হতাশা কাটায় এমন ওষুধের নাম লেখা ছিল’।

অন্যদিকে ইতিমধ্যেই নিজেদের বিরুদ্ধে মামলা রদ করতে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছেন সুশান্তের দুই দিদি। তবে সোমবার কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা আদালতকে জানিয়ে দেয়, রিয়ার অভিযোগ সুশান্তের দিদির বিরুদ্ধে ‘অনুমানমূলক এবং কল্পনাপ্রসূত’। তবে এ সব অভিযোগ মূল তদন্তের অংশ হতে পারে বলেও জানিয়েছে সিবিআই।

বুধবার ওই মামলার শুনানি হবে বলে খবর। উল্লেখ্য, কিছুদিন আগেই সুশান্তের বান্ধবী রিয়া চক্রবর্তী অভিযোগে করে গত ৮ জুন সুশান্ত এবং তাঁর দিদি প্রিয়ঙ্কার মধ্যে হোয়াটসঅ্যাপে ওষুধপত্র নিয়ে আলোচনা হয়। আর তারপরেই গত ১৪ জুন ঝুলন্ত অবস্থা সুশান্তের দেহ উদ্ধার হয়। এমনকি সুশান্তের ২ দিদির বিরুদ্ধে যাতে মামলা তুলে নেওয়া না হয় সে জন্য গত সপ্তাহেই বম্বে হাইকোর্টে আবেদন করেন রিয়া।

Tags

Related Articles

Close