বিনোদন

”ওরা আমায় মেরে ফেলেছে দিদি, বিচার চাই”, যেন দিদির কাছেই কাতর আবেদন সুশান্তের

প্রায় দু মাসের বেশী হতে চলল সুশান্ত হারা বলিউড। অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুত ছেড়ে চলে গেলেও সে আজও জীবন্ত তার অনুরাগীদের মনে, পরিবারের সদস্যদের মনে। সুশান্ত আর নেই, কখনও আর ফিরবে না একথা মানতে পারছেনা তার দিদিরা। সুশান্তকে নিয়ে আরও একবার আবেগঘন পোস্ট সুশান্তের ছোট দিদির।

গত ১৪ জুন বান্দ্রায় সুশান্ত সিং রাজপুতের নিজের ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার হয়েছিল তার নিথর দেহ। হঠাৎ করে অভিনেতার মৃত্যু মানতে পারেনি কেউ। সুশান্তের মৃত্যুর পরই অভিনেতার বাবা অভিযোগের আঙ্গুল তুলেছিলেন সুশান্তের বান্ধবী রিয়া চক্রবর্তীর দিকে। যদিও ময়নাতদন্তের রিপোর্টে উল্লেখ ছিল আত্মহত্যা করেছেন অভিনেতা। কিন্তু তা মানতে নারাজ সুশান্ত অনুরাগী থেকে তার পরিবার। সারাদেশ ‘জাস্টিস ফর সুশান্তে’ মেতেছিল। বারবার বিচার চেয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় সরব হয়েছেন প্রয়াত অভিনেতার বাবা ও দিদিরা। সুশান্তকে নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় সবথেকে বেশি পোস্ট যিনি করেছেন তিনি হলেন সুশান্তের ছোট দিদি শ্বেতা সিং কীর্তি। সম্প্রতি প্রয়াত সুশান্তকে নিয়ে ফের শ্বেতা সিং কীর্তির আবেগঘন পোস্ট।

পোস্ট করে শ্বেতা লিখেছেন, ‘আমি আমার ভাইকে হারিয়েছি। প্রতিদিন আমার হৃদয় থেকে রক্ত ঝরঝে।সত্য প্রকাশ্যে আসতে আর কত সময় লাগবে?কখন এই মৃত্যু রহস্যের সমাধান হবে?’ পাশাপাশি এই পোস্টের সঙ্গে সুশান্তের ভিডিয়ো শেয়ার করে শ্বেতা লিখেছেন ‘ভাই পাক্কা আমাদের হাতে অনেক সময় আছে?’ তারপরেই লেখা, ‘ওরা আমায় মেরে ফেলেছে দিদি, বিচার চাই’। উল্লেখ্য, ইতিমধ্যেই সুশান্ত মৃত্যুরহস্য ভেদে তদন্তে নেমেছে সিবিআই।

এছাড়াও শ্বেতা সিং কীর্তির আরেকটি পোস্ট সেখানে দেখা যাচ্ছে ২০১৮ সালে ১.২৫ কোটি টাকা আর্থিক সাহায্য করেছিলেন নাগাল্যান্ডের বন্যা কবলিত মানুষদের সুশান্ত সিং রাজপুত। আর তার পরিপ্রেক্ষিতে নাগাল্যান্ড সরকার অভিনেতাকে ধন্যবাদ জানিয়ে একটি চিঠিও পাঠিয়েছিল। সেই চিঠির কপি শেয়ার করে শ্বেতা লিখেছেন, ‘ভাইয়ের সহানুভূতিশীল হৃদয় সবসময় অন্যের সাহায্যের জন্য হাত বাড়িয়ে দিত। ভালোবাসা রইল’।

Tags

Related Articles

Close