কলকাতানিউজরাজ্য

‘করোনা নয়, দেশের সব থেকে বড় অতিমারি বিজেপি,’ কেন্দ্রকে কড়া আক্রমণ মমতার

বিজেপি করোনার থেকেও বড় অতিমারি বলে মন্তব্য করলেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

হাথরস কান্ড নিয়ে উত্তেজনা তুমুল। সমস্ত বিরোধী দলগুলিও এখন এই নিয়ে রাজনৈতিক তরজা চালিয়ে যাচ্ছে। বাংলার তৃণমূলও এই ঘটনার তীব্র বিরোধিতা করছে। আর এবার বিজেপি করোনার থেকেও বড় অতিমারি বলে মন্তব্য করলেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শনিবার তিনি হাথরস কান্ডের প্রতিবাদে নেমে বলেন, ‘‘বাংলায় একটা ছোট ঘটনা ঘটলেও যত কমিশন আছে পাঠিয়ে দেয়। ডিজি, এডিজিকে ডেকে পাঠায়। কত প্রশ্ন করে তখন! আর দিল্লির দাঙ্গায় লোক মারা গেলে, উত্তরপ্রদেশে দলিতকন্যাকে ধর্ষণের পরে খুন করে জ্বালিয়ে দেওয়া হলেও কোনও কমিশন নেই।’’

শনিবার দীর্ঘ ৬ মাস পরে তিনি উত্তরপ্রদেশে দলিতকন্যার ধর্ষণ ও খুনের ঘটনার প্রতিবাদে রাজনৈতিক কর্মসূচিতে অংশ নিলেন তৃণমূলনেত্রী। শনিবার নেত্রী বিড়লা তারামণ্ডলের সামনে থেকে ধর্মতলায় গাঁধী মূর্তি পর্যন্ত মিছিলে হাঁটেন। আর মিছিলের শেষে সভায় মমতা বলেন, “করোনার জন্য আমরা রাজনৈতিক কর্মসূচি করিনি। কিন্তু কী করব? এখন তো অত্যাচারের অতিমারি চলছে। করোনার মতো অতিমারির সঙ্গে আমরা লড়াই করছি। তবে এ দেশে সব থেকে বড় অতিমারি বিজেপি। দেশটাকে শেষ করে দিচ্ছে।’’

তিনি এদিন আরও বলেন, “একটি মেয়েকে ধর্ষণ করে খুন করা হল। বাড়ির লোকেদের কাছে দেহ না দিয়ে জোর করে দেহ জ্বালিয়ে দেওয়া হল। আর এরপরেও কাউকে কথা বলতে দেবে না। বিজেপি সুপার অটোক্র্যাসি চালাচ্ছে। নির্যাতিতার কথা যাতে না দেখানো হয়, সেইজন্য সংবাদমাধ্যমকেও হুমকি দেওয়া হচ্ছে।” এদিনের সভায় তিনি বারংবার কেন্দ্রের বিরুদ্ধে মন্তব্য করেছেন।

Tags

Related Articles

Close