×
Jannah Theme License is not validated, Go to the theme options page to validate the license, You need a single license for each domain name.

ঘুরে গেল ভাগ্যের চাকা, স্টেশনে ভিক্ষাবৃত্তি ছেড়ে ফের লাইমলাইটে রানাঘাটের রাণু মণ্ডল

রানাঘাট স্টেশন থেকেই শুরু হয়েছিল তার যাত্রা৷ অল্প কয়েকদিনেই লতার গান গেয়ে রীতিমত তারকার সম্মান পেয়েছেন তিনি। সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে রাতারাতি লাইমলাইটে চলে আসেন সে। নিশ্চয়ই বুঝতে পেরে গেছেন এখানে রানাঘাটের রানুদির কথাই হচ্ছে। লতা কণ্ঠী রানু যেরকম তাড়াতাড়ি সাফল্যের শীর্ষে পৌঁছে ছিলেন ঠিক তেমনই দ্রুত শীর্ষ থেকে নেমে সোজা মাটিতে গিয়ে পড়েন। বেশ কয়েকদিন হারিয়ে যাওয়ার পর ফের লাইট-ক্যামেরা-অ্যাকশনে রানু মন্ডল।

ভবঘুরে রানু মন্ডল রানাঘাট স্টেশনে একদিন বসে মনের সুখে গান গাইছিলেন, ‘এক প্যায়ার কা নাগমা হ্যায়’। নিত্যযাত্রী অতীন্দ্র চক্রবর্তী মোবাইলে রেকর্ড করেন সেই গান। ভাল লাগা থেকেই তা পোস্ট করেন ফেসবুকে। সেই শুরু। নেটিজেনরা রানুর কণ্ঠ শুনে আপ্লুত হয়ে যান। কোথাও যেন লতা মঙ্গেশকরের সঙ্গে তাঁর কণ্ঠের হুবহু মিল।তারপর থেকেই নেটিজেনদের দৌলতেই লতা কণ্ঠি খেতাব জুটে যায় রানুর। তাঁর উত্তরণের গল্প এখানেই শেষ নয়। বাংলার সীমা ছাড়িয়ে রানু পৌঁছে যান স্বপ্ননগরী মুম্বইয়ে। এক রিয়্যালিটি শোয়ের আমন্ত্রণে গিয়েছিলেন তিনি। সেখান থেকেই ডাক পান বলিউডে গান গাওয়ার জন্য। খোদ হিমেশ রেশমিয়া তাঁর গানে মুগ্ধ।এরপর হিমেশের সঙ্গে রেকর্ড করেন ‘তেরি মেরি কাহানি’। কিন্তু তারপরে এক সময়ের সেনসেশন রানু কোথাও যেনও হারিয়ে যান। জানা যায় রাতে সেলিব্রিটি আবার ফিরে গিয়েছে স্টেশনে।

তবে, অবশেষে ফের ঘুরল ভাগ্যের চাকা। হিমেশের পর এবার রূপঙ্কর বাগচীর সাথে গান গাইবেন রানাঘাটের রানুদি। এবার ডিজিটাল কনসার্টের মঞ্চে রাণু মণ্ডলের সঙ্গে গাইবেন শিল্পী রূপঙ্কর। বৃহস্পতিবার নরেন্দ্রপুরের গানঘর স্টুডিওতে হয়ে গেল কনসার্টের শুটিং।

এই প্রসঙ্গে যার হাত ধরে রানু মন্ডল স্টার হয়েছিলেন সেই সেই অতীন্দ্র চক্রবর্তী জানান, ‘এ দিনের ডিজিটাল কনসার্টের রেকর্ডিংয়ে মূলত আশা জী, লতা জীর গানই গেয়েছেন রাণু দি। খুব তাড়াতাড়ি অনুষ্ঠানটি দেখা যাবে’। এটা বলতেই হয় নেটিজেনদের দৌলতেই লতা কণ্ঠি খেতাব জুটে যায় রানুর। তবে,লকডাউনের আগে ফেব্রুয়ারি মাস নাগাদ জানা যায়, নতুন বাড়ি ছেড়ে পুরনো বাড়িতেই ফিরে গিয়েছেন রাণু। অনেকেই বলেন ইদানীং নাকি আর তেমন কাজ পাচ্ছেন না রাণু, তাই মিডিয়ার মুখোমুখি হচ্ছেন না। আবার অনেকেই বলেন অহঙ্কারই কাল হয়েছে রাতারাতি সেলিব্রেটি রাণুর। একটু নাম ডাক হতেই পাল্টে যায় রানাঘাটের রানুদির ভাব সাব।