অফবিটভাইরাল ভিডিও

গাছে বেঁধে বেধড়ক মার! অবলা হাতির বুকফাটা আর্তনাদেও মন গলল না দুই মাহুতের, ভাইরাল ভিডিওতে তোলপাড় সোশ্যাল মিডিয়া

ফের নির্মম পাশবিক ঘটনার সাক্ষী রইলো নেটদুনিয়া। মনুষ্যত্ব হারিয়ে মানুষ যে কতটা নির্মম হতে পারে, তার প্রমাণ মিললো আবার! ভাইরাল এক ভিডিও। তা দেখে মনে জাগতে বাধ্য নানা প্রশ্ন। বারংবার অবলা, নিরপরাধ পশুদের উপর মানুষের অত্যাচার ২০২০-র শেষ দিক থেকে যেন অনেকটা বেশি! এসব অমানবিক আচরণের পরেও পার পেয়ে যাচ্ছে অপরাধীরা; নেই যথাযথ শাস্তির ব্যবস্থা।

পশুদের উপর এরকম নির্মম অত্যাচার লোকসমক্ষে এলে সুর চড়ে সোশ্যাল মিডিয়ায়। কয়েকদিন হয় হইচই। তার ষপর যেন এনট্রপি হারিয়ে “ট্রেন্ডিং” থাকে না আর; ফলে আবার সব চুপ। এর মধ্যে দেশের অন্য কোনও অংশ থেকে পাওয়া যায় পশুদের উপর নির্মম অত্যাচারের খবর। কিছুদিন আগের কেরলে হয়ে যাওয়া হাতির উপর অত্যাচার শোকস্তব্ধ করেছিল দেশবাসীকে। এবার গাছের সাথে একটি হাতিকে বেঁধে লাঠি দিয়ে মারার ঘটনা সামনে এলো। কাঠগড়ায় দুই মাহুত। সেই হাতির চিৎকার কাঁটার মতো বিঁধলো সেনসিটিভ সিটিজেনদের মধ্যে।

জানা গেছে, ১৯ বছর বয়সী মেয়ে হাতিটির নাম জয়মালীতা। অভিযুক্তদের নাম ভিনীল কুমার ও তার সহকারী মাহুত শিবপ্রসাদ। স্থানীয়দের দাবি, মাহুতের আজ্ঞা পালন না করায় হাতিটিকে গাছের সঙ্গে বেঁধে একের পর এক লাঠির ঘা দিয়ে আঘাত করে অমানবিক অত্যাচার করে দুই মাহুত। হাতিটির কান্না ভোলাতে পারেনি দুই পাষাণ হৃদয়কে। “হিন্দু রিলিজিয়াস অ্যান্ড চ্যারিটেবল এন্ডোমেন্টস” আয়োজিত তামিলনাড়ুর শ্রীভিল্লীপুথুরের অন্দাল মন্দিরে ৪৮ দিনের ওই শিবিরে তামিলনাড়ু ও পন্ডিচেরী থেকে প্রায় ২৬ টি হাতিকে আনা হয়েছিল। শিবির উপলক্ষ্যে আনা এই হাতিটিকে গাছের সঙ্গে বেঁধে লাঠি দিয়ে মারতে শুরু করেন দুই মাহুত।

যন্ত্রণায় কাঁদতে থাকলেও ওই হাতির উপর এই পাশবিক নির্যাতন বন্ধ হয়নি। ভাইরাল হওয়া ২০ সেকেন্ডের এই ভিডিও চোখে জল এনে দিয়েছে আমজনতার। ইতিমধ্যেই ওই দুই মাহুতের নামে দায়ের হয়েছে মামলা।

Tags

Related Articles

Close