নদীয়া সংবাদনিউজরাজ্য

নদীয়ার শান্তিপুরে প্রবল গঙ্গা ভাঙ্গন, তলিয়ে যেতে পারে স্কুল, উদ্যান সহ বহু জমি

জনপ্রতিনিধিদের জানিয়েও কিছু বালির বস্তা ছাড়া আর কোনো সুরাহা হয়নি।

মলয় দে নদীয়া : – শান্তিপুর শহরের ১৬ নম্বর ওয়ার্ডের স্টিমার ঘাট এলাকায় ভাঙ্গন শুরু হয়েছে।  গতকাল এলাকাবাসী প্রথম খেয়াল করেন জল প্রকল্পের প্রাচীরের পাশে ফাটল। এরপর ক্রমশ ভাঙতে দেখা যায় ওই স্থানের আশেপাশের বেশ খানিকটা জায়গা। স্থানীয় বাসিন্দারা জানান যে গঙ্গার নাব্যতা কমে যাওয়ার ফলে, জাহাজ চলাচলের সময় জলরাশি ধাক্কা খায় নদীর পারে।

জনপ্রতিনিধিদের জানিয়েও কিছু বালির বস্তা ছাড়া আর কোনো সুরাহা হয়নি। পাড় বাঁধানোর স্থায়ী ব্যবস্থা করা হয়নি। ওই স্থানেই শিশুদের একটি উদ্যান তৈরি হলেও উদ্বোধনের আগেই হয়তো তলিয়ে যেতে পারে জলের তলায়, শান্তিপুর শহরের সরবরাহের পানীয় জল প্রকল্পের নির্মাণ প্রকল্পটি ও তলিয়ে যেতে বসেছে জলের তলায়।

স্থানীয় একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়েও ছাত্র-ছাত্রীদের পড়াশোনার থেকেও বেশি গুরুত্ব দিতে হয় দুর্ঘটনা এড়ানোর দিকে। ভাঙ্গনের ফলে রাস্তার একেবারে পাশেই পৌঁছেছে গঙ্গা।  অন্যদিকে বসতবাড়ি মাঝখানে ব্যবধান ১৫ ফুট মতো। বিশেষ সূত্রে জানা যায় শান্তিপুরে ভাগীরথী  তীরবর্তী একের পর এক ভাঙ্গনের খবর উঠে এসেছে সংবাদমাধ্যমে।

কিছুদিন আগেই শান্তিপুর শহরের চরসারাগর এলাকায় বিঘের পর বিঘে চাষের জমি, বসতবাড়ি তলিয়ে গেলেও সুরাহা পাননি কোনো।‌ এবার সরকারি সম্পত্তি রক্ষার্থে কী পদক্ষেপ নেয় সেটাই দেখার অপেক্ষায়! তবে আজ সকাল ১১ টা নাগাদ ভাঙ্গনের পরিমাপের জন্য সেচ দপ্তর থেকে মাপ নিতে দেখা গেছে।

Tags

Related Articles

Close