সমুদ্রের পাড়ে দেখা গেল বিরল প্রজাতির নীল ‘ড্রাগন’, ঝড়ের গতিতে ভাইরাল ভিডিও

দক্ষিণ আফ্রিকার কেপটাউনের একটি সমুদ্রতটে হঠাৎই দেখতে পাওয়া গেছে প্রায় কুড়িটি ড্রাগন! অনেকের মধ্যেই এই প্রশ্ন জাগতে পারে যে ড্রাগন কীভাবে এখানে আসতে পারে? এটি আসলে একটি বিষাক্ত সামুদ্রিক প্রাণী যার রং একেবারে নীল, তাই এর নাম ব্লু ড্রাগন। সোশ্যাল মিডিয়ায় গত এক সপ্তাহ জুড়ে এই নীল ড্রাগনের ছবি চারিদিকে ছড়িয়ে পড়েছে। শুধু তাই নয়, এই অদ্ভূত ধরণের প্রাণীটি যখন সমুদ্রতটে সমুদ্রের সাদা ফেনার মধ্যে দিয়ে বালির উপরে এসে উপস্থিত হয়েছে, তখন তাকে স্বচক্ষে দেখার জন্য উপচে পড়েছে ভিড়।

এদের দেখতে যতটা সুন্দর, এরা চারিত্রিকভাবে ঠিক তার উল্টো। আকারে ছোট হলেও এদের শরীরে রয়েছে ভয়ংকর বিষ। একবার যদি কোন প্রাণী বা মানুষের শরীরে এরা হুল ফুটিয়ে দেয়, তাহলে বিষক্রিয়া সাথে সাথে গোটা শরীরের মধ্যে ছড়িয়ে পড়ে। তাই প্রাণীটিকে ‘সমুদ্রের সবচেয়ে সুন্দর ঘাতক’ নামে অভিহিত করা হয়।

আর পাঁচটা দিনের মতো সেদিনও স্থানীয় এক বাসিন্দা মারিয়া এই সমুদ্রতটে হাঁটতে বেরিয়েছিলেন। কিন্তু হঠাৎই তিনি এই অদ্ভূত প্রাণীটিকে দেখতে পান। হলুদ বালিয়াড়ির মধ্যে উজ্জ্বল নীল বর্ণের অনেকটা টিকটিকি আর অক্টোপাস এর মিশ্রণে তৈরি এই প্রাণীটিকে দেখে তিনি অবাক হয়ে যান।

পৃথিবীতে এখনো এই আজব ধরণের প্রাণীরা বেঁচে আছে। তবে পরিবেশের সঙ্গে কিছুটা লড়াই করেই হয়তো তাদের বেঁচে থাকতে হয়। তবুও মাঝে মধ্যে মানুষের চোখের সামনে আসার চলে ফলে সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে এগুলো ভাইরাল হতে খুব বেশি সময় লাগে না।