অফবিটদেশনিউজ

বউয়ের বিরিয়ানিতে বাজিমাত, ভাগ্য ফিরলো অসহায় যুবকের

বিয়ে সংসার সবকিছুর মধ্যে প্রত্যেক মানুষ একটা বন্ধু চাই যে তাকে মানসিকভাবে সাপোর্ট করবে। সবসময় পাশে থাকবে। বিবাহ মানে দুটি মনের মিলন। যেখানে দুটি মানুষ এক অপরকে প্রতি অগাধ বিশ্বাস করতে পারবে। যেখানে চারিদিকে পরকিয়ার খবর ভেসে আসছে সেখানে এক দম্পতির অটুট ভালোবাসার ও একসঙ্গে লড়াই এর নজির মিলল।

করোনা আবহে অনেকেই কাজ হারিয়েছেন, অনেকেই অন্ন সংস্থানের জন্য চিন্তিত সেখানেই তাদের প্রেরনা দিতে পারে রহিত সর্দানা ও রজনীর কাহিনী। দিল্লির বাসিন্দা এই দম্পতির জীবনেও প্রভাব পড়ে লকডাউনের, কাজ হারান রহিত। সেই সময় আর বাকিদের মতো তারাও চিন্তিত হয়ে পড়েন। আর ঠিক সেই সময়ই রজনী পাশে এসে দাড়ান। নিজের হাতের রান্নাকে কাজে লাগিয়ে বিরিয়ানির দোকান খুলে ফেলেন। তার হাতের বিরিয়ানী এখন জনপ্রিয়।

একটি প্রসাধনী সামগ্রীর সংস্থায় কাজ করতেন রোহিত। কর্মী ছাঁটাইয়ের পর যখন অথৈ জলে পড়ার মতোন অবস্থা তখন একজন আদর্শ স্ত্রীর মতোই স্বামীর পাশে এসে দাড়ান। প্রথম থেকেই বিরিয়ানি টা ভালোই বানাতেন রজনী। তাই ঠিক করেন ভেজ বিরিয়ানি দিয়ে হাতেখড়ি হবে দোকানের। সেই মতই শুরু করে বিরিয়ানি তৈরি। প্রথমেই একটু আধটু বিক্রি হলেও বর্তমানে তাদের ব্যবসা জমে গেছে।

দুজনে মিলে এখন হাড়ি হাড়ি বিরিয়ানি রেধে গাড়ি করে বিক্রি করতে বের হয়ে যান। রজনী জানিয়েছেন ভোর পাঁচটায় ঘুম থেকে উঠে 4 ঘন্টা ধরে বিরিয়ানি বানান। তারপর গাড়িতে করে পৌঁছে যান নির্দিষ্ট জায়গায়। সাড়ে 10 টা থেকে বিকেল তিনটে পর্যন্ত চলে তাদের এই অস্থায়ী দোকান। রজনীর বিরিয়ানি এখন সকলের ভীষন পছন্দের। জীবনে যতই বাধা আসুক একসঙ্গে থাকলে যে ঠিক জয়ী হওয়া যায় তারই প্রমাণ দিলেন এই দম্পতি।

Tags

Related Articles

Close