নিউজরাজ্য

মেদিনীপুরে দেখা গেল বিশ্বের সবচেয়ে বৃহত্তম প্রজাতির কুমির, চরম আতংকে মানুষ

সুন্দরবন বাঘ কুমিরের আপন দেশ বলা যেতে পারে। কিন্তু এবার সেই কুমিরের খোঁজ মিললো পূর্ব মেদিনীপুরে। তাও আবার একবার নয় পরপর তিনবার। রাজ্য বনদপ্তর সূত্রে খবর পূর্ব মেদিনীপুরে এই প্রথম বিশ্বের সবচেয়ে বৃহত্তম প্রজাতির কুমিরের দেখা মিলেছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে সুন্দরবন থেকেই হুগলি নদীর রাস্তায় 50 থেকে 150 কিলোমিটার সাঁতরে এই কুমিরগুলি মেদনীপুরের দিকে চলে এসেছে।

কিছুদিন আগেই আম্ফান সাইক্লোন বয়ে যায় বঙ্গের ওপর, অনুমান সেই সাইক্লোনের ফলেই উঁচু জায়গায় বাসা বেঁধে ডিম পাড়তে চেয়েছে এই প্রজাতির কুমীর। এছাড়াও যেহেতু লকডাউনের প্রভাবে পরিবেশ শান্ত ছিল তাই এই এলাকাকে প্রজননের উত্তম জায়গা হিসেবে চিহ্নিত করেছিল এই কুমীরটি।

12 ও 24 সেপ্টেম্বর এ নিজকসবা বিটের বাজকুল রেঞ্জ থেকে দুটো কুমীর উদ্ধারের পর সম্প্রতি শনিবার এই কুমীরটি উদ্ধার করা হয়েছে। তবে প্রথম দুটিকে নদীতে ছেড়ে দেয়া হলেও এই কুমিরটিকে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে আলিপুর চিড়িয়াখানায়। বন দফতরের এক কর্তা জানিয়েছেন এই কুমিরটি প্রায় 13-14 ইঞ্চি লম্বা, বয়স বছর দেড়েক।

হুগলীর একটি খাড়ি বাগুই নদীর অংশে কুমির উদ্ধার হয়েছে, জানা গেছে সম্প্রতি বনদপ্তর ম্যানগ্রোভের চাষ করছিল সেখানে। আর কুমিররা ম্যানগ্রোভকে ডিম পাড়ার জায়গা হিসেবে বেছে নেয়। বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন এ ধরনের কুমির প্রজননের জন্য 900 কিলোমিটার পর্যন্ত যেতে পারে। তাই সুন্দরবন থেকে মেদিনীপুরে ঘাটি গড়া অবাককর বিষয় নয়।

Tags

Related Articles

Close