দেশনিউজ

করোনা হাসপাতালে বসেছে মদের আসর, ভিডিও ভাইরাল

করোনা আতঙ্কে ঘুম উড়েছে দেশবাসীর। কিন্তু তাতে কি অপরাধীর কমছেনা অপরাধ করার পরিসীমা, কমছে না বাড়বাড়ন্তের পরিসীমাও। সত্যি কি বিচিত্র এ দেশ।নিয়মকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে খোদ করোনা হাসপাতালে বসেই পার্টি করছে অপরাধী। এক হাতে হাতকড়া অন্য হাতে মদের বোতল নিয়ে।

কিছুদিন আগেই অপহরণের অভিযোগে ধৃত এক ব্যক্তিকে গ্রেফতারের পর রাখা হয় কোভিড ওয়ার্ডে। আর সেই ওয়ার্ডে বসেই মদের আনন্দে মেতেছে অপরাধী। ঘটনা ধানবাদের Bharat Coking Coal Limited হাসপাতালের। সম্প্রতি ভাইরাল হয়েছে অপরাধীর সেই মদ খাওয়ার ভিডিও। ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে অপহরণ কাণ্ডে অভিযুক্ত ৩০ বছরের সান্টু গুপ্তার সামনে থরেথরে সাজানো খাদ্য৷ নানাবিধ খাদ্যের সম্ভার সঙ্গে রয়েছে মদের বোতলও৷ সেই বোতল থেকে মদ খেতে খেতেই ভিডিও করছে খোদ অভিযুক্ত। কিন্তু হাসপাতালে বসে কিভাবে অভিযুক্ত এই ধরনের কাজ করতে পারে সেই নিয়ে উঠেছে প্রশ্ন। প্রশ্ন উঠেছে হাসপাতালের নিরাপত্তা নিয়েও।

এই ঘটনা প্রসঙ্গে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষর দাবি,ওই অপরাধী কোথা থেকে এ ধরনের খাবার ও পানীয় পেল তা খতিয়ে দেখবে তারা। অন্যদিকে এই ঘটনায় অত্যন্ত ক্ষুব্ধ ঝাড়খণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী হেমন্ত সোরেন। তিনি ডেপুটি কমিশনার উমাশঙ্কর সিংকে ঘটনাটি খতিয়ে দেখার নির্দেশ দিয়েছেন৷

প্রসঙ্গত,ধানবাদ পুলিশ সূত্রে খবর অভিযুক্ত সান্টু গুপ্তা শিব কলোনি কাতরাসের বাসিন্দা৷ অভিযুক্তর বিরুদ্ধে এর আগে এক বয়স্ক দম্পতিকে অপহরণ করায় এফআইআর দায়ের হয়৷ শুধু তাই নয় তার বিরুদ্ধে রয়েছে ইভটিজিংয়ের অভিযোগও৷ কিন্তু বর্তমান পরিস্থিতিতে তার করোনা রিপোর্ট পজিটিভ আসার জন্যই তাকে রাখা হয়েছে হাসপাতালে। কিন্তু হাসপাতাল থেকে এই ধরনের কাজকর্ম মোটেই মানতে পারছে না কেউ। সোশ্যাল মিডিয়ায় অভিযুক্তর এই ভিডিও দেখে ছি ছিৎকার করছে সকলে।

Tags

Related Articles

Close