আন্তর্জাতিকনিউজ

১,৩০০ বছর পুরনো বিশালাকার বিষ্ণু মন্দিরের খোঁজ মিলল পাকিস্তানে

বারিকোট ঘুন্ডাইয়ে একটি খননকার্য চালানোর সময় এই মন্দিরটির সন্ধান পেয়েছেন প্রত্নতত্ত্ববিদরা।

প্রায় ১৩০০ বছরের পুরনো হিন্দু মন্দিরের খোঁজ মিলল দক্ষিণ-পশ্চিম পাকিস্তানে। পাকিস্তানের সোয়াট জেলায় পাহাড়ের কোলে প্রাচীন এই মন্দিরটির সন্ধান পেয়েছেন পাক ও ইতালীয় ভূতত্ত্ববিদরা। বারিকোট ঘুন্ডাইয়ে একটি খননকার্য চালানোর সময় এই মন্দিরটির সন্ধান পেয়েছেন প্রত্নতত্ত্ববিদরা। জানা গিয়েছে, এটি একটি বিষ্ণু দেবতার মন্দির ছিল।

জানা গিয়েছে, ওই এলাকাতে খোদাইয়ের কাজ চালানোর সময় এই প্রাচীন মন্দিরটির খোঁজ মেলে। ভূতত্ত্ববিদ ও স্থানীয় হিন্দুদের ধারণা, এটি অন্তত তেরোশো বছরের পুরনো। গত বৃহস্পতিবার এই মন্দিরের সন্ধান পাওয়ার কথা কথা ঘোষণা করেন খাইবার পাখতুখাওয়ার ভূতত্ত্ব বিভাগের ফাজল খালিদ।

তিনি বলেছেন যে এই মন্দিরটি হিন্দু দেবতা বিষ্ণুর। হিন্দু শাহী আমলে হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা প্রায় ১৩০০ বছর আগে এই সুবিশাল মন্দির বানিয়েছিলেন। তবে শুধু মন্দির নয়, খোদাইয়ের সময় সেনা ছাউনি ও ওয়াচটাওয়ারেরও সন্ধান পেয়েছেন ভূতত্ত্ববিদরা। এছাড়া একটি জলাশয়ও খুঁজে পাওয়া গিয়েছে। এই জলাশয় দেখে মনে করা হচ্ছে, হিন্দুরা ওই মন্দিরে পুজো দেওয়ার আগে এখানে স্নান সারতেন।

ফাজেল খালিক আরও বলেছেন, এই সোয়াত জেলায় এর আগেও প্রচুর প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শন পাওয়া গিয়েছে। এর আগে এখানে গান্ধার সভ্যতার মন্দিরের সন্ধান পাওয়া গিয়েছিল। এই জেলা পাহাড়ের কোলে সাজানো পর্যটকদের অন্যতম আকর্ষণীয় স্থান। এখানে অনেক বৌদ্ধ মঠও রয়েছে। বহু পর্যটক এই সুন্দর জায়গা দর্শন করতে আসেন।

Tags

Related Articles

Close