Advertisements

ঐশ্বর্যর সেক্সি ফিগারে ক্লিন বোল্ড অভিষেক, জানেন কি দেখে রাই সুন্দরীর প্রেমে পাগল হয় জুনিয়র বচ্চন

Advertisements

বলিউড সুপারস্টার অমিতাভের একমাত্র পুত্র অভিষেক, তবে একটা সময়ে অভিষেক কে করতে হয়েছিল প্রোডাকশন হাউজে স্পট বয় এর কাজ। পড়াশোনা শেষ করে নিজের অ্যাক্টিং ক্যারিয়ার শুরুর আগে প্রোডাকশন হাউজ এর সাথে স্পট বয় এর কাজ করতেন অভিষেক, সেই কথা নিজেই জানিয়েছেন তিনি। আর তখনই রাই সুন্দরীর প্রেমে হাবুডুবু খাওয়া শুরু তার।

সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে অভিষেক জানালেন কিভাবে তিনি ঐশ্বর্যর প্রেমে হাবুডুবু খেয়ে ছিলেন এক কালে, তখনো বলিউডে পা রাখেননি অভিষেক, নিজেদের প্রোডাকশন হাউজই অন্যান্য স্পট বয়দের সাথে হাতে হাতে কাজ করতেন তিনি। আর তখনই ঐশ্বর্য সাথে আলাপ হয় তার, যাকে প্রথম নজরে দেখেই নিজের মন মন্দিরে বসে ফেলেন অভিষেক।

একবার প্রোডাকশন এর সাথে শুটিংস্পট ঠিক করতে সুইজারল্যান্ডে গিয়েছিলেন অমিতাভ পুত্র, কারণ সুইজারল্যান্ডের বোডিংয়ে থেকে বেশকিছুদিন পড়াশোনা করেছিলেন তিনি, তাই সেখানকার জায়গার বিষয়ে অভিজ্ঞতা ছিল অভিষেকের। আর সেই সময়ই সুইজারল্যান্ডে গিয়েই প্রথমবার নিজের স্বপ্ন সুন্দরী ঐশ্বর্য কে দেখেন তিনি।

অভিষেকের ছেলেবেলার বন্ধু অভিনেতা ববি দেওয়াল তখন সুইজারল্যান্ডে শুটিং করছেন ‘অর পেয়ার হো গেয়া ‘ ছবির, ববির বিপরীতে নায়িকা ঐশ্বর্য, ববির কন্যানেই প্রথমবার ঐশ্বর্য সাথে আলাপ হয় অভিষেকের। ববি নিজেই দুজনের আলাপ করান। ঐশ্বর্যর প্রথম দর্শনেই তাকে ভালোবেসে ফেলেন অভিষেক, আর সেই ঐশ্বর্যকেই ২০০৭ সালে বিয়ে করেন অভিনেতা। ইতিমধ্যেই তারা একসাথে সুখী দাম্পত্যের ১৪ বছর কাটিয়ে ফেলেছেন। এবং ২০১১ সালে ঐশ্বর্য এবং অভিষেকের জীবনে এসেছে তাদের কন্যা আরাধ্যা।

Related Articles