কলকাতানিউজরাজ্য

করোনা আবহে বড়সড় সুখবর, কর্মসংস্থানের জোয়ার আসতে চলেছে বাংলায়, ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

নবান্নের বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী বলেন যে বানতলায় চর্মশিল্পে কমপক্ষে ৫ লক্ষ কর্মসংস্থান হবে।

সামনেই নির্বাচন। আর তাই ভোটবাক্সকে মজবুত করতে একের পর এক প্রতিশ্রুতি দিচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী, এমনটি মনে করছেন বিরোধী দলের নেতারা। বুধবার সাংবাদিক বৈঠকে রাজ্যের কর্মসংস্থানের সুযোগ নিয়ে আশ্বাস দিলেন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি বলেছেন বানতলা, দিঘা, মেদিনীপুরের মতো একাধিক জায়গায় বিনিয়োগ হচ্ছে।

এদিন নবান্নের বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী বলেন যে বানতলায় চর্মশিল্পে কমপক্ষে ৫ লক্ষ কর্মসংস্থান হবে। জার্মানের বিনিয়োগের ফলে মেদিনীপুরে সৌরবিদ্যুৎ প্রকল্প হচ্ছে। সেখানেও প্রচুর মানুষ কাজের সুযোগ পাবেন। এছাড়া দিঘাতেও নতুন শিল্প আসছে, এখানেও কাজ পাবেন বহু বেকার যুবক-যুবতী, এমনই আশ্বাস দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।

এছাড়া তিনি এটাও বলেছেন যে ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পে পশ্চিমবঙ্গ প্রথম। এখানে জঙ্গল, সমুদ্র, পাহাড় সবই রয়েছে। তাই পর্যটন ব্যবসারও উন্নতি করা সম্ভব হবে। এদিন বৈঠকে তিনি বাংলার বিভিন্ন প্রকল্পের কথা তুলে ধরেন। সবুজসাথী প্রকল্প, সবুজশ্রী প্রকল্পের কথা উল্লেখ করেন। এছাড়া পরিবেশ রক্ষার কথা মাথায় রেখেও রাজ্য সরকার পরিবেশবান্ধব নানা নতুন প্রকল্পের চিন্তাভাবনা করছে বলে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। দিঘায় কেবল ল্যান্ডিং স্টেশন তৈরি হচ্ছে। আর এখানে কেবল ল্যান্ডিং স্টেশনে প্রায় ১ হাজার কোটি টাকা জিও লগ্নি করছে, একথা আজ আবার উল্লেখ করেছেন নেত্রী।

যদিও বিরোধীদের মতে, সামনে ভোট আসছে। আর ভোটবাক্স মজবুত করতেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য সরকার। তবে ওয়াকিবহাল মহলের মতে, রাজ্যে বিভিন্ন প্রকল্পে বিনিয়োগ আসছে। নতুন করে অনেক কর্মসংস্থান হবে। এই সমস্ত কথা বলে পরোক্ষ ভাবে বিরোধীদেরই জবাব দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

Tags

Related Articles

Close