×

জলের সঙ্গে ভেসে আসছে তাল তাল সোনা, সংকটের মাঝে স্বস্তি পেল দরিদ্র গ্রামবাসী

রহস্য-রোমাঞ্চ কম নেই আমাদের এই পৃথিবীতে। তার উপর এই বছরটা ২০২০, চাইলেও ভোলা যাবে না এমন একটা বছর৷ করোনা মহামারী তো রয়েছেই, তার উপর নানান অদ্ভুত ও রহস্যজনক ঘটনার সাক্ষী বিশ্ব৷ এবার এক বিচিত্র ঘটনার সাক্ষী লাতিন আমেরিকার এক দেশ ভেনেজুয়েলার ছোট্ট মৎসজীবী গ্রাম গুয়াকা। কেন রহস্য? গুয়াকার সমুদ্রতটে প্রায়ই ভেসে আসছে ছোট ছোট সোনার তাল এবং সোনা-রূপার গয়না৷

জানা গেছে, গুয়াকার গ্রামবাসীরা এই ঘটনা প্রত্যক্ষ করে আসছেন গত সেপ্টেম্বর থেকে৷ এই অঞ্চলের অর্থনৈতিক অবস্থা এমনিতেই খারাপ৷ করোনা অনাহার ও অর্থকষ্টে কাটা দেশটির কফিনে শেষ পেরেকটি পুঁতে দিয়েছে৷ গ্রামটির জনগণ ক্যারিবিয়ান সমুদ্র উপকূলে সোনা-রূপা ভেসে আসার এই ঘটনাকে ঈশ্বরের আশীর্বাদ বলে মনে করেছেন৷ এমন কি মাতা মেরির খোদাই করা একটা ছবিও পেয়েছিলেন গুয়াকার বছর পঁচিশের বাসিন্দা ইয়োলম্যান ল্যারেস৷

ল্যারেস তার সাথে ঘটে যাওয়া এই অভাবনীয় ঘটনা নিজের পরিবারের মানুষের সঙ্গে প্রথমে শেয়ার করেছিলেন৷ তারপর জানাজামি হওয়ার পর ২০০০ গ্রামবাসী ওই সমুদ্রের উপকূলে গুপ্তধনের সন্ধানে হাত লাগান৷ অদ্ভুত আশ্চর্যের ব্যাপার এই যে প্রায় ১২ জন গ্রামবাসী একটা করে হলেও অত্যন্ত দামী কিছু পেয়েছেন ওই সমুদ্র থেকে।

উদ্ধার হওয়া সোনাদানা বিক্রি করে প্রায় ১৫০০ মার্কিন ডলার উপার্জন করেছেন ওই গ্রামবাসীরা৷ এই মিরাক্যালের ফলে শেষ কয়েক মাসে গ্রামবাসীদের ভাগ্যের চাকাটাই অনেকটাই ঘুরে গিয়েছে৷ এক মৎস্যজীবী বলছেন, “যা হচ্ছে সবটাই ভগবানের ইচ্ছায় “৷