আন্তর্জাতিকনিউজ

মায়ের কানের দুল চমকে দিলো ছেলের ভাগ্য

মা ,এই শব্দটি যেন প্রত্যেকের জীবনের এক ভরসাস্থল শান্তির জায়গা। মায়ের কোল মানে সবচেয়ে নির্ভয়ময় স্থান। মায়ের নিজের সন্তানের জন্য সবকিছু করতে পারে। এমনই এক মা ছেলের সত্যিকারের গল্প তুলে ধরবো যা সমাজে এক দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে।

ঘটনার সূত্রপাত প্রায় 12 বছর আগে তখন ছেলেটি কলেজে পড়ত। হঠাৎই কলেজ এর ফর্ম ফিলাপের জন্য বেশ কিছু টাকার দরকার পড়ে তার। কিন্তু তার বাবা ইস্কুলের একজন সাধারন শিক্ষক থাকায় সেই সম্মানী দিয়ে কষ্ট করেই সংসার চালাতেন। তার ভাই আর তার দুজনে পড়ার খরচ চালাতে যথেষ্ট অভাবের মুখোমুখি হতে হয়। তার ওপর ফর্ম ফিলাপের টাকা জোগাড় করার জন্য একমাত্র পন্থা দাড়িয়েছিল জমি বিক্রি করা।

কিন্তু যখন অনেক চেষ্টা করেও জমি বিক্রি করতে পারা গেল না তখন ছেলেটির সমস্ত পথ যেন অন্ধকার হয়ে যাচ্ছিল। আর ঠিক সে সময় তার মা ছেলের জীবনে দ্যুতি এনে দিলেন। ছেলেটির মা তার কান থেকে দুটোর সোনার গয়না খুলে দিলেন। সেই দুল বিক্রি করে করা হলো ফর্ম ফিলাপ‌। সেদিনই ছেলেটি সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন যে যেভাবে তার মা নিজের শখের জিনিস গুলি অবলীলায় ছেড়ে দিয়েছেন সেও চাকরি পাওয়ার পর মায়ের জন্য স্বপ্ন পূরণ করবেন।

গত বছরে চাকরি পাওয়ার পর জানুয়ারি মাসে 3 তারিখে সে ময়মনসিংহ থেকে মায়ের জন্য গয়না কেনে। এরপর ছেলের হাতে সেই শখের কানের দুল দেখে কতটা খুশি হয় তা ব্যক্ত করার নয়। ছেলেটির ভাষায়- “সেই চির চেনা সোনার ঝুমকা দুল দেখেই কেঁদে ফেললেন মা। আমি নিজে হাতে সেই দুল পড়িয়ে দিই। এ এক পরম পাওয়া, এ অনুভূতি ভালোলাগার অনুভূতি। আজ আমি উপরওয়ালার রহমতে জাজ হয়েছি। আজ God আমার মায়ের সে স্বপ্নপূরণ করেছেন।”

Tags

Related Articles

Close