খেলা

পাড়ার ক্রিকেট থেকে ওয়াল্ড ক্রিকেট, কেমন ছিল ক্যাপ্টেন কুলের যাত্রাপথ? জানুন বিস্তারিত

রাঁচির মেকন কলোনি থেকে মুম্বইয়ের ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামের দূরত্ব বেশ অনেকটাই। প্রায় ১,৭২৪ কিমি। পাড়ার ক্রিকেট খেলা থেকে বিশ্বকাপ জয় আলাদাই গল্প আছে ধোনির জীবনে।

Advertisement

ধোনি দেশের হয়ে আর খেলবে নাকি এই প্রশ্ন বহু ক্রিকেট প্রেমীর মনে অনেকদিন ধরে ঘুরছিল। তবে গতকাল সব জল্পনার অবসান ঘটিয়ে স্বাধীনতা দিবসের সন্ধ্যায় সকলকে চমকে দিয়ে ইন্টারন‌্যাশনাল ক্রিকেট থেকে অবসর ঘোষণা করলেন মহেন্দ্র সিং ধোনি। আর দেশের জার্সিতে দেখা যাবেনা এই ‘৭’ নং পরা জার্সিটিকে। রাঁচির মেকন কলোনি থেকে ওল্ড ট্র্যাফোর্ড কেমন ছিল ধোনির ক্রিকেট যাত্রা।

রাঁচির মেকন কলোনি থেকে মুম্বইয়ের ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামের দূরত্ব বেশ অনেকটাই। প্রায় ১,৭২৪ কিমি। পাড়ার ক্রিকেট খেলা থেকে বিশ্বকাপ জয় আলাদাই গল্প আছে ধোনির জীবনে। তাই সকলের থেকে আলাদা ‘ধোনি ভাই’। তার এই যাত্রাপথটা কতটা কঠিন ছিল সেটা প্রত্যেক ক্রিকেট প্রেমী, বিশেষ করে ধোনি ভক্তদের জানা দরকার। গতকাল অবসর ঘোষণার সময় তিনি জানান,‘ আপনাদের ভালোবাসা ও সাপোর্টের জন্য অনেক অনেক ধন্যবাদ। আমাকে সন্ধে ৭ টা ২৯ মিনিট থেকে অবসরপ্রাপ্ত হিসেবে গণ্য করবেন।

২০০৪ সালের শেষের দিকে ভারতের বাংলাদেশ সফরে ক্যাপ্টেন কুলের যে যাত্রা শুরু হয়েছিল গতকাল তার সমাপ্তি হল। বিশেষজ্ঞদের অনেকেই বলছেন, ধোনির অবসরে ভারতীয় ক্রিকেটে একটি অধ্যায় শেষ হল। সকলের ধারণা ছিল টি-২০ বিশ্বকাপ খেলে হয়তো অবসর নেবে ধোনি। কিন্তু ধোনি যে সকলের থেকে আলাদা। তাই আচমকাই অবসরের ঘোষণা করে সকলকে চমকে দিলেন। ভারতের একজন সফলতম অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি। তার ঝুলিতে রয়েছে দু-দু’টি বিশ্বকাপ সহ আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি।

পরিসংখ্যান থেকে জানা গেছে, ভারতের হয়ে ধোনি মোট ৯০টি টেস্ট খেলেছে, ৩৫০টি খেলেছে ওয়ানডে ম্যাচ এবং টি-২০ ম্যাচ খেলেছে ৯৮ টি। টেস্টে তার রান ৪,৮৭৬। গড় রান ৩৮.০৯। ১০০ করেছে ৬টি এবং অর্ধশতরান করেছে ৩৩ টি। সর্বোচ্চ স্কোর হল ২২৪। ওয়ানডে ইন্টারন্যাশনাল ম্যাচে তার রান ১০,৭৭৩। গড় ৫০.৫৩। ১০ টি শতরান এবং ৭৩ টি অর্ধশতরান করেছে ধোনি। সর্বোচ্চ স্কোর ১৮৩ নট আউট। একদিনের আন্তর্জাতিকে ম্যাচে একটি উইকেটও তার ঝুলিতে রটেছে। টি-২০ ম্যাচে তার রান ১,৬১৭। গড় ৩৭.৬০। ২ টি অর্ধশতরান। উইকেট কিপার হিসেবে একদিনের আন্তর্জাতিকে, টেস্টে এবং আন্তর্জাতিক টি-২০ ম্যাচে ধোনি ক্যাচ নিয়েছে যথাক্রমে ৩২১ টি, ২৫৬ টি এবং ৫৭ টি। স্টাম্পিং করেছে ১২৩ টি, ৩৮ টি এবং ৩৪ টি। ওয়াংখেড়েতে ব্যাটিং অর্ডার চেঞ্জ করে ৪ নম্বরে ব্যাট করতে নেমে নুয়ান কুলশেখরের বলে ছক্কা মেরে দলকে জিতিয়ে ব্যাট ঘোরানো, সবই মিস করবে ক্রিকেট প্রেমীরা। আর এগুলো ভারতের ক্রিকেট ইতিহাসে অমর হয়ে থাকবে। এগুলো কখনই মোছা যাবে না।

Tags

Related Articles

Close