খেলা

অধিনায়কের পদ থেকে সরানো হোক দীনেশ কার্তিককে, দাবিতে তোলপাড় সোশ্যাল মিডিয়া

এই ৪ টি ম্যাচে কেকেআর-এর অধিনায়ক হিসাবে দীনেশ কার্তিকের পারফরম্যান্স নিয়ে প্রশ্ন তুলতে বাধ্য করছে সমর্থকদের।

আগের বছরের মত এইবছরেও কলকাতা নাইট রাইডার্সের অধিনায়কত্ব নিয়ে প্রশ্ন উঠছে। এবছরের আইপিএল-এ কলকাতার ৪ টি ম্যাচ হয়েছে। যার মধ্যে দুটি ম্যাচে জয় আর দুটি ম্যাচে পরাজিত হয়েছে নাইট রাইডার্স। আর এই ৪ টি ম্যাচে কেকেআর-এর অধিনায়ক হিসাবে দীনেশ কার্তিকের পারফরম্যান্স নিয়ে প্রশ্ন তুলতে বাধ্য করছে সমর্থকদের। আর অধিনায়কের কিছু ভুল সিদ্ধান্ত একেবারেই পছন্দ নয় সমর্থকদের। আর তাই সোশ্যাল মিডিয়াতে এই অধিনায়ককে বদলের দাবি উঠছে সোশ্যাল মিডিয়াতে।

দীনেশ কার্তিকের পারফরম্যান্স আগের বছর একেবারেই ভালো ছিল না। তার উপর ক্যাপ্টেনসিও ঠিকঠাক ছিল না। তাই ভালো টিম থাকা সত্বেও আগের বার প্লে অফে যেতে পারেনি নাইটসরা। আর এবছর দল অনেক বেশি শক্তশালী ও ভালো রয়েছে। কিন্তু সেই একই রয়ে গেছে ক্যাপ্টেনের কার্যকলাপ। এর জন্য দায়ী রয়েছে অবশ্যই ভুলভাল টিম ম্যানেজম্যান্ট আর ভুল ব্যাটিং লাইন আপ। আর এর প্রমান মিলেছে গতকালের দিল্লি ম্যাচে।

এদিন দিল্লি ২২৮ রান করেছিল। তবে কলকাতা মাঠে নেমেই একের পর এক উইকেট পড়তে থাকে। আর ইয়ন মর্গ্যান যখন ব্যাট করতে নামলেন তখন ওভারে ১৫ রানের বেশি প্রয়োজন। এদিকে রাহুল ত্রিপাঠি, যিনি কিনা একজন ওপেনার তাঁকে নামানো হল ৮ নম্বরে। বোলার প্যাট কামিন্সেরও পরে। আর এই ভুলের মাশুল গুনতে হল দলকে। প্রাণপন চেষ্টা করেও শেষপর্যন্ত হেরে মাঠ ছাড়তে হল নাইটদের। মর্গ্যান ও রাহুল ত্রিপাঠি দুজনকে প্রচুর রান করে ম্যাচকে এগিয়ে নিয়ে গেছে। কিন্তু শেষ পর্য্ন্ত ১৮ রানে পরাজিত হল নাইট রাইডার্সরা।

আর তাই ফেসবুক, টুইটারে চোখ রাখলেই দেখা যাচ্ছে, কেকেআর ম্যানেজমেন্টের কাছে সমর্থকরা একটাই দাবি জানাচ্ছেন, কার্তিককে সরিয়ে বিশ্বজয়ী অধিনায়ক ইয়ন মর্গ্যানকে অধিনায়ক করা হোক। গতকাল রাত থেকে টুইটার ট্রেন্ডিংয়ে উপরের দিকে #NotMyCaptain হ্যাশট্যাগটি। সোশ্যাল মিডিয়ায় সমর্থকরা দাবি তুলছেন, এবার সময় এসেছে দীনেশকে ক্যাপ্টেন্সি থেকে বিদায় দিয়ে বিশ্বজয়ী মর্গ্যানকে অধিনায়ক করা হোক।

Tags

Related Articles

Close