অফবিট

জন্মের পরেই অন্ধ হয়ে যায় এই গ্ৰামের বাসিন্দারা, পেছনে লুকিয়ে গভীর রহস্য

অবিশ্বাস্য হলেও এটাই সত্যি! এই গ্রামের সকলেই অন্ধ। তবে জন্মগত অন্ধ নয় এরা। আর দশটা মানুষের মতোই স্বাভাবিক দৃষ্টিশক্তি নিয়ে জন্মায় এই গ্ৰামের বাসিন্দারা। কিন্তু জন্মানোর এক সপ্তাহের মধ্যেই দৃষ্টিশক্তি হারিয়ে ফেলেন এই গ্রামের বাসিন্দারা‌। শুধুমাত্র মানুষেই নয়, গ্রামের গৃহপালিত পশুরাও তাদের দৃষ্টিশক্তি হারিয়ে ফেলে। কিন্তু কিভাবে জন্মের কিছুদিনের মধ্যেই এই গ্ৰামের বাসিন্দারা ও গৃহপালিত পশুরা তাদের দৃষ্টিশক্তি হারিয়ে ফেলে! এর পিছনে রহস্য একটা রয়েই যায়।

জানা গেছে, এই গ্ৰামের নাম টিলটেপেক। এটি মেক্সিকায় অবস্থিত। এই গ্রামে মোট ৭০টি কুঁড়েঘর রয়েছে। তিনশো জন মত মানুষ এই গ্ৰামে বাস করে। জাপোটেক নামের এক উপজাতী গোষ্ঠীর এই মানুষজন রহস্যজনক ভাবে ছোটো থেকেই অন্ধ হয়ে যায়। এই খবর শোনার পরেই নড়ে চড়ে বসেছে সেই দেশের সরকার।

টিলটেপেক গ্রামের বাসিন্দাদের হঠাৎ দৃষ্টিশক্তি হারানোর কারণ অনুসন্ধানে গবেষণাও শুরু করেছেন বিজ্ঞানীরা। বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, এই গ্ৰাম ঘন জঙ্গলে ঘেরা। আর এই ঘন জঙ্গলে ‘ব্ল্যাক ফ্লাই’ নামের এক বিষাক্ত প্রজাতির মাছি উপস্থিতি ব্যাপক পরিমানে লক্ষ করা গেছে। আর সেই বিষাক্ত মাছির কামড়ের ফলেই ছোটোবেলা থেকেই দৃষ্টিশক্তি হারিয়ে ফেলে এই গ্রামের বাসিন্দারা‌। ইতিমধ্যেই সেদেশের প্রশাসন ওই গ্ৰামকে ‘ব্ল্যাক ফ্লাই’ মুক্ত করার পরিকল্পনা শুরু করে দিয়েছে। প্রয়োজনে গ্ৰামের বাসিন্দাদের অন্যত্র সরিয়েও নিয়ে যাওয়ার পরিকল্পনা করছে তারা।

Tags

Related Articles

Close