×
Jannah Theme License is not validated, Go to the theme options page to validate the license, You need a single license for each domain name.

Viral: খুদের মুখে বারো ঘরের অদ্ভুত নামতা শুনে অজ্ঞান শিক্ষক! হেঁসে লুটোপুটি খেল নেটনাগরিকরা

সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে নিত্যদিন ভাইরাল হয়ে থাকে শিশুদের নানান মজার কান্ড কারখানা। আ সারাদিনের ব্যস্ততার ফাঁকে কচিকাচাদের নিষ্পাপ সারল্যেভরা মুখগুলো দেখলেই যেন মনের মেলে এক অদ্ভুত প্রশান্তি। আবার কিছু কিছু একরত্তির কাণ্ডকারখানা দেখে হাসির ফোয়ারা ছোটে নেটিজেনদের মুখে। এমনই এক ক্ষুদে শিশুর ভিডিও সাম্প্রতিককালের সোশ্যাল মিডিয়ায় হল ভাইরাল। ভিডিওটি দেখলে আপনিও নিজে হাসি চেপে রাখতে পারবেন না বৈকি।

সোশ্যাল-মিডিয়ায়-ভাইরাল এই ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে ঘরভর্তি শিক্ষার্থীর মাঝে শিক্ষক ছোট্ট এক শিশুকে বারোর ঘরের নামতা বলতে বলেন আর শিক্ষকের আদেশ শুনেই শিশুটিও তৎক্ষণাৎ বারোর ঘরের নামতা দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে বলা শুরু করে দেয় এবং খুব তাড়াতাড়ি পুরো নামতাটি বলা শেষ করে দেয় সে যা দেখে রীতিমতো চমকে যান শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা। অতঃপর শিক্ষক তাকে 13 এর ঘরের নামতাটি শোনাতে অনুরোধ করেন।

এবার শিশুটি 13 এর ঘরের নামতাটি পরে শুনালে ক্লাস জুড়ে ওঠে হাসির রোল। এমনকি স্বয়ং শিক্ষক মহাশয় শিশুটির এহেন কাণ্ডের জেরে নিজের হাসি থামিয়ে রাখতে পারেন না। তবে ঠিক কি কারণে ক্লাসশুদ্ধ শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা হেসে উঠেছিলেন? শুনলে হেসে উঠবেন আপনিও। এদিন শিক্ষক মহাশয় শিশুটিকে প্রথমে বারোর ঘরের নামতা পড়ে শোনাতে বলল শিশুটি সম্পূর্ন আত্মবিশ্বাসের ভুল 12 এর নামতা শোনায়। পরবর্তীতে তাকে 13 এর ঘরের নামতা শোনাতে বলা হলে পরেরবার আগেরবারের থেকেও ততোধিক আত্মবিশ্বাসের সাথে 13 ঘরের নামতাটি ভুল উচ্চারণ করে সে।শিশুটির এহেন কান্ড দেখে স্বাভাবিকভাবেই হাসি আটকে রাখতে পারেননি কেউ।

@bhutni_ke_memes নামক এক ইনস্টাগ্রাম পেজ থেকে শেয়ার করা এই ভিডিওটি বর্তমানে রয়েছে সামাজিক মাধ্যমে ট্রেন্ডিংএ। ভিডিওটির কমেন্ট বক্সে রয়েছে মজার সব কমেন্ট। তবে এক কথায় খুদে একরত্তির এমন ভিন্ন স্টাইলে নামতা বলার ব্যাপারটি বেশ পছন্দ হয়েছে নেটিজেনদের আর সেই কারণেই সোশ্যাল মিডিয়ায় এই ভিডিও বর্তমানে ভাইরাল। তবে এখনো পর্যন্ত অজ্ঞাতই রয়েছে সেই ছোট্ট শিশুটি পরিচয়!