×
Jannah Theme License is not validated, Go to the theme options page to validate the license, You need a single license for each domain name.

লেপ বানাতে লাল কাপড় ব্যবহার করা হয় কেন? এর পিছনে রয়েছে বিরাট বড় কারণ

বাংলার প্রথম নবাব মুর্শিদকুলি খাঁ'এর আমল থেকেই লাল রঙের মখমলের কাপড় ব্যবহার করে লেপ সেলাই করা হতো

কালীপুজো পেরোলেই শীতের আবহ শুরু। আর শীতকাল মানেই সোয়েটার, জ্যাকেট, লেপ, তোষক। শীত আসতে না আসতেই যেমন পুরনো লেপ, তোষক রোদে দেওয়ার ধুম পড়ে যায়। তেমনি নতুন নতুন লেপ বানাতেও দেখা যায়। আর সবথেকে বেশি নজর কাড়ে লেপ তৈরিতে ব্যবহৃত লাল কাপড়। কখনো কি ভেবে দেখেছেন সবসময় লেপ তৈরিতে কেন লাল কাপড়ই ব্যবহার করা হয়?

এর পেছনে কি কোনো ইতিহাস আছে নাকি অন্য কোনো নির্দিষ্ট কারণ রয়েছে? আজ আমরা সেই প্রশ্নের উত্তর জানবো। একসময় মুর্শিদাবাদের নিজস্ব এই শিল্পের প্রচলন ছিল সর্বত্র। লম্বা আঁশযুক্ত কার্পাস তুলো ছাড়িয়ে লাল রঙে চুবিয়ে শুকিয়ে ভরা হতো সিল্ক বা মখমলের মাঝখানে। সে মখমলের রঙ ছিল লাল। একইসাথে তাতে মেশানো হতো আতর।

যদিও বর্তমানে দাম বেশি থাকার কারণে মখমলের কাপড় ব্যবহার করা হয় না। কিন্তু লাল কাপড় আজও ব্যবহার করা হয়। বিহার, ওড়িশা-,সহ অবিভক্ত বাংলার প্রথম নবাব মুর্শিদকুলি খাঁ’এর আমল থেকেই লাল রঙের মখমলের কাপড় ব্যবহার করে লেপ সেলাই করা হতো। এরপর তার জামাই সুজাউদ্দিন মখমলের পরিবর্তে সিল্কের কাপড় ব্যবহার করা শুরু করেন।

অন্যদিকে বাংলাদেশের ব্যবসায়ীরা জানান লেপের এই রং ব্যবহার নবাবরাও অনুসরণ করতেন। তবে এসব কারণ ছাড়াও অন্য কিছু কারণ রয়েছে। আসলে লেপ কখনো ধোয়া যায় না। আর লাল কাপড় ব্যবহারের ফলে ময়লা কম হয়। যদিও এক্ষেত্রে রয়েছে মতান্তর। কারণ, মনে করা হয় ব্যবসার খাতিরে ক্রেতাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করতেই লাল কাপড়ে বানানো হয় লেপ।