অফবিট

মা লক্ষ্মীর বাহন প্যাঁচা হয় কেন? প্রায় বেশিরভাগ মানুষই সঠিক উত্তর বলতে পারেন নি

হিন্দু ধর্ম মতে মা লক্ষ্মীকে সুখ,শান্তি ও সমৃদ্ধির দেবী হিসেবে ধরা হয়

বাঙালীদের সবথেকে বড়ো উৎসব দুর্গাপুজোর পর সকলেই অপেক্ষা করে থাকেন কোজাগরী লক্ষ্মী পুজোর জন্য। সম্প্রতি সেই পুজো সম্পন্ন হয়েছে। দুর্গাপুজো শেষ হওয়ার কয়েকদিন পরেই পূর্ণিমা তিথিতে প্রত্যেক বাঙালী পরিবারে মা লক্ষ্মীর আরাধনা করা হয়। ধানের শীষ,আলপনা নাড়ু,মিষ্টিজাতীয় খাবার দিয়ে ধুমধামের সাথে পূজিতা হন মা লক্ষ্মী।

হিন্দু ধর্ম মতে মা লক্ষ্মীকে সুখ,শান্তি ও সমৃদ্ধির দেবী হিসেবে ধরা হয়। শোনা যায় নিয়মিতভাবে মা লক্ষ্মীর আরাধনা করলে পরিবারের সমস্ত অর্থনৈতিক সংকট দূর হয়ে যায় এবং সুখ-শান্তি বজায় থাকে। প্রত্যেক বছর এই দিন ছাড়াও প্রতি সপ্তাহের বৃহস্পতিবার লক্ষ্মীবার হিসেবে ধরা হয়। এদিনও মা লক্ষ্মীর আরাধনা করা হয় প্রত্যেক বাড়িতে।

অন্যদিকে আমরা সকলেই জানি যে মা লক্ষ্মীর বাহন হিসেবে ধরা হয় সাদা প্যাঁচাকে। অনেকে আবার প্যাঁচাকে ‘লক্ষ্মী প্যাঁচা’ হিসেবেও ডাকেন। বছরের যে কোনো সময় এই প্যাঁচাকে বাড়ির আশেপাশে দেখা গেলে সেটাকে খুবই শুভ হিসেবে মনে করা হয়। কী কারণে প্যাঁচাকে লক্ষ্মীর বাহন হিসেবে ধরা হয় তা নিয়ে বিভিন্ন মত রয়েছে।

অনেকের মতে মা লক্ষ্মী রাতের বেলায় আগমন করেন। আর প্যাঁচা যেহেতু রাতে ভালোভাবে দেখতে পায় সে কারণে মা লক্ষ্মী তাকেই নিজের বাহন হিসেবে বেছে নিয়েছেন। আবার কারো কারো মতে মা লক্ষ্মীর প্রতীক ধান,যেহেতু ইঁদুর ধানের ক্ষতি করে এবং প্যাঁচা ইঁদুরকে বধ করে তাই এই পাখি মা লক্ষ্মীর বাহন হয়ে উঠেছে। এক কথায় বলতে গেলে এই বিষয়টি নিয়ে মতভেদ রয়েছে ভক্তদের মনে।

Related Articles