অফবিটনিউজ

একটি উৎপাদন করতেই লাগে ১ লক্ষ টাকা! এটিই বিশ্বের সবচেয়ে দামি আনারস

ভারতবর্ষে সারা বছর নানান ধরনের ফল ও শাকসবজি চাষ করা হয়। বিশেষ করে শীতকালে এর পরিমাণ বেড়ে যায় বহুমাত্রায়। এর মধ্যেই রয়েছে আনারস। সুস্বাদু এই ফলটির চাহিদা বাজারে প্রচুর। আনারস সাধারণত চাষ করতে বেশ খানিকটা সময় লাগে। যদিও অল্প টাকাতেই এই চাষ করা সম্ভব। তবে আজ আপনাদের এমন একটা আনারসের কথা জানাবো যা চাষ করতে খরচ হয় লক্ষ টাকা।

কী অবাক হচ্ছেন তো? ভাবছেন এমন কী আনারস রয়েছে, যা চাষ করতে এতো টাকা খরচ হয়? আসুন তাহলে সম্পূর্ণ বিষয়টি খোলসা করেই বলা যাক। আসলে ইংল্যান্ডের হেলিগানের লস্ট গার্ডেনে চাষ হয় বিশ্বের সবচেয়ে দামী এই আনারস। যা চাষ করতে সময় লাগে দুই থেকে তিন বছর এবং খরচ হয় লক্ষ লক্ষ টাকা।

এই বিশেষ আনারসের নাম ‘হেলিগান’ আনারস। বাগানের নাম থেকেই এই আনারসের নাম রাখা হয়েছে। তবে ইংল্যান্ডে সাধারণভাবে আনারসের চাষ করা হয় না। এর জন্য অন্যরকম কৌশল অবলম্বন করা হয়েছে। সেখানে এক একটি গামলাতে আনারসের হয় এবং সার হিসেবে দেওয়া হয় ঘোড়ার মল। তাতেই খরচ হয়ে যায় লক্ষ লক্ষ টাকা।

তবে আপনি জানলে অবাক হবেন এই আনারস কিন্তু বিক্রির জন্য চাষ করা হয় না। সেগুলি তৈরি করা হয় বিশেষ ব্যক্তিদের উপহার পাঠানোর জন্য। একটি তথ্য থেকে জানা গিয়েছে ১৮১৯ সালে এটি প্রথম উপহার হিসেবে পান হেলিগান। এরপর ৬০ থেকে ৭০ বছর পর এই প্রজাতি আনারস চাষ শুরু হয়। ১৯৯১ সালে এই আনারসের চাষ হয় বলে দাবী করেছেন কর্মীরা। এই চাষ থেকে পাওয়া দ্বিতীয় আনারসটি দেওয়া হয়েছিল রানী এলিজাবেথকে।