অফবিটনিউজরাজ্য

ছোট্ট টিপের ওপর দূর্গা মায়ের ছবি এঁকে তাক লাগালেন বাঙালি যুবক, প্রশংসার ঝড় নেট দুনিয়ায়

দশভুজার সব অস্ত্র থেকে অশুর বধ। লক্ষ্মী, গণেশ, সরস্বতী, কার্তিক সবাই রয়েছে ওই টিপে। টিপগুলির মধ্যে দেবী দূর্গা ও বাকি পরিবারের সদস্যরাও আছেন।

দীর্ঘ ৬ মাস প্রচেষ্টার পর অবশেষে এক অভিনব শিল্পকলার নিদর্শন সামনে আনলেন শিলিগুড়ির তরুণ চিত্র শিল্পী মিঠু রায়। দেড় সেন্টিমিটার দৈর্ঘ্য আর এক সেন্টিমিটার প্রস্থ এই উচ্চতার টিপের মধ্যে মা দুর্গার ছবি আঁকলেন এই শিল্পী। করোনা কালে দীর্ঘদিন লকডাউন থাকার ফলে তাঁর আঁকার স্কুল বন্ধ। ছিল আর তাই নতুন কিছু করার ভাবনা আসে ওই শিল্পীর। যেমন ভাবা, তেমন কাজ।

এবছর দেশে-বিদেশে সব জায়গাতেই ছোটো মা দুর্গার বায়না করা হয়েছে। কুমোরটুলিতে শিল্পীরা বেশিরভাগ ছোট মূর্তির কাজ করছেন। এইবছর ছোটো প্রতিমার দিকেই ঝুঁকে পুজো উদ্যোক্তারা। আর তাই ছোট মূর্তি তৈরী ভাবনা এই তরুণ শিল্পীর। এবার তিনি বড় ক্যানভাসে নয়, বেছে নিয়েছেন ছোট্ট একটা টিপকে। আর এই ছোট টিপের মধ্যেই মায়ের মৃন্ময়ী রূপকে তুলে ধরেছেন। দশভুজার সব অস্ত্র থেকে অশুর বধ। লক্ষ্মী, গণেশ, সরস্বতী, কার্তিক সবাই রয়েছে ওই টিপে। টিপগুলির মধ্যে দেবী দূর্গা ও বাকি পরিবারের সদস্যরাও আছেন।

ইতিমধ্যেই এই শিল্পীর এই শিল্পকলা মনোনীত হয়েছে ইন্টার ন্যাশনাল বুক অব রেকর্ডসে। ছবিটি পাঠানো হয়েছে গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডে। সেখানেও মনোনীত হবার আশাতেই রয়েছেন শিলিগুডির এই শিল্পী। স্বামীর এই কাজে সাহায্য করছেন ও সবসময় পাশে থেকেছেন তাঁর স্ত্রী সঙ্গীত শিল্পী সীমা সাহা রায়। এই চিত্র শিল্পী খালি চোখেই দেবীর ছবি ফুটিয়ে তুলেছেন মায়ের টিপে। তাঁর এই কাজের জন্য খুব প্রশংসিত হয়েছেন তিনি। আর আজকের দেবীপক্ষের এই সূচনার দিনেই এই অসামান্য সৃষ্টি সামনে এসেছে।

Tags

Related Articles

Close