নদীয়া সংবাদনিউজরাজ্য

দীর্ঘ প্রতীক্ষার পরও মেলেনি শান্তিপুর পৌরসভার শববাহী গাড়ি, অবশেষে মরদেহ শ্মশানে পৌঁছালো কাঁধেই

পরিবারের পক্ষ থেকে দিপুর পৌরসভার শববাহী গাড়ি "বৈতরণীর" দুটি যোগাযোগ নাম্বারেই যোগাযোগ করেও পাওয়া যায়নি কাউকে।

মলয় দে নদীয়া:- নদীয়া জেলার শান্তিপুর শহরের ১৪ নম্বর ওয়ার্ডের আনন্দময়ী পাড়ার ৬২ বছরের বৃদ্ধ গোলক বিশ্বাসের আজ ভোর ৭ টা নাগাদ অসুস্থজনিত কারণে মৃত্যু হয়। পরিবারের পক্ষ থেকে দিপুর পৌরসভার শববাহী গাড়ি “বৈতরণীর” দুটি যোগাযোগ নাম্বারেই যোগাযোগ করেও পাওয়া যায়নি কাউকে।

অবশেষে পরিবারের পক্ষ থেকে শান্তিপুর পৌরসভায় সশরীরে এসে পৌঁছালে তৎপরতার সঙ্গে দেখলেও খুঁজে পান না চালককে। পৌরসভায় গাড়ি দাঁড় করানো থাকলেও অবশেষে তার বাড়ির ঠিকানায় পৌঁছায় পরিবারের পক্ষ থেকে। কিন্তু সেখান থেকেও জানা যায় তিনি ডিউটির জন্য বেরিয়ে পড়েছেন সকালেই।

এরপরে এলাকার পক্ষ থেকে পৌর প্রশাসককে অনুরোধ করা হয় অন্য ড্রাইভার দিয়ে ওই গাড়িতে পাঠানোর জন্য। তাতেও কোনো সুরাহা মেলেনি বলেই দাবি পরিবারের পক্ষ থেকে। অবশেষে এই করোনা পরিস্থিতিতেও ভিড় এড়ানোর সুযোগ না পেয়ে বাধ্যতামূলক সকলেই শবদেহ বাঁশের মাচায় কাঁধে নিয়ে শ্মশানে পৌঁছান। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এলাকাবাসীরা বলেন,পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানানো তো দূরের কথা! ন্যূনতম পৌর পরিষেবাও ব্যাহত হচ্ছে হয়তো পৌরসভার মেয়াদ উত্তীর্ণ হওয়ার জন্য।

Tags

Related Articles

Close