নদীয়া সংবাদনিউজরাজ্য

ভেঙে গুঁড়িয়ে গেল ১৬৭ বছরের শান্তিপুর মিউনিসিপ্যাল উচ্চবিদ্যালয়ের মূল প্রবেশদ্বারের তোরণ

মাধ্যমিক, উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার রাজ্যের মধ্যে সম্মানজনক স্থান বেশ কয়েকবার পেয়েছে এই বিদ্যালয়।

মলয় দে নদীয়া:- নদীয়ার শান্তিপুর শহরের সবচেয়ে পুরাতন বিদ্যালয় শান্তিপুর মিউনিসিপ্যাল উচ্চ বিদ্যালয়! ১৮৫৪ সাল থেকে জেলা রাজ্য ছাড়িয়ে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে এমনকি দেশের বাইরে খ্যাতির শিখরে রয়েছেন এই স্কুলের ছাত্ররা। মাধ্যমিক, উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার রাজ্যের মধ্যে সম্মানজনক স্থান বেশ কয়েকবার পেয়েছে এই বিদ্যালয়।

আজ সেই বিদ্যালয়ের মূল প্রবেশদ্বারের তোরণ ভেঙে পড়লো লরির ড্রাইভার এবং বালি সিমেন্ট অবতরণের কিছু শ্রমিকদের অদক্ষতায়। সরকারি অর্থআনুকূল্যে বরাদ্দকৃত ৬৭ লক্ষ অর্থের মধ্যে প্রথম ধাপে ২২ লক্ষ টাকা অনুমোদনে জেলা পরিষদের তত্ত্বাবধানে টেন্ডারপ্রাপ্ত কৃষ্ণনগরের অমিত কর্মকার আজ একটি সিমেন্টের গাড়ি পাঠান সকাল এগারোটা নাগাদ। ওই বিদ্যালয়ের বর্তমান একাদশ-দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্রদের পঠন-পাঠনের করুণানিধান ভবনটি নির্মাণকার্য চালু থাকায় বিদ্যালয়ের মূল প্রবেশদ্বার খোলা ছিলো।

লরি চালক কিছু শ্রমিকদের অনভিজ্ঞ পরামর্শে গাড়িটি খালি করার জন্য বিদ্যালয়ের মধ্যে প্রবেশ করে, যথারীতি খালিও করে। কিন্তু বেরোনোর সময় দুর্ঘটনাবশত তোরণটি ভেঙে পরে লরির উপর। এ বিষয়ে বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি কৌশিক প্রামানিক জানান, “জেলা পরিষদের ডিভিশনাল ইঞ্জিনিয়ারকে দুর্ঘটনায় বিষয়টি জানানোর পরে আশ্বাস দিয়েছেন নতুন করে দেওয়ার জন্য। কিন্তু এত আবেগ ,স্মৃতিবিজড়িত তোরণ ভেঙে যাওয়াতে শুধু বিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে আমরা নই সমগ্র শান্তিপুরবাসীর কাছে অত্যন্ত দুঃখের। তবে দুর্ঘটনা বলে মেনে নেওয়া ছাড়া আর উপায় কী!”

Tags

Related Articles

Close