নদীয়া সংবাদনিউজরাজ্য

নদীয়া শান্তিপুর জাতীয় সড়কের সম্পূর্ণ মেরামতির দাবিতে পথ অবরোধে নামলেন মহিলারা

গোবিন্দ পুর কালিবাড়ি সংলগ্ন লেভেল ক্রসিং এলাকাটি রেল কর্তৃপক্ষের অধীনস্থ হওয়ায় পি ডব্লিউ ডি এবং রেল কর্তৃপক্ষের মধ্যে সামঞ্জস্যর অভাবে ওই এলাকায় এবছর বর্ষার মধ্যে বেহাল দশা ছিল।

মলয় দে নদীয়া:- নদীয়ার শান্তিপুরের মধ্য দিয়ে যাওয়া অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ জাতীয় সড়কের গোবিন্দপুর কালীবাড়ি রেল ক্রসিং এলাকায় সমস্যা দীর্ঘদিনের। বছর খানেক আগে এলাকার বিভিন্ন রকম বিক্ষোভের পর স্থায়ীভাবে সারানো হয়। তবে গোবিন্দ পুর কালিবাড়ি সংলগ্ন লেভেল ক্রসিং এলাকাটি রেল কর্তৃপক্ষের অধীনস্থ হওয়ায় পি ডব্লিউ ডি এবং রেল কর্তৃপক্ষের মধ্যে সামঞ্জস্যর অভাবে ওই এলাকায় এবছর বর্ষার মধ্যে বেহাল দশা ছিল।

এলাকাবাসীর বিক্ষোভের ফলে কিছুটা সুরাহা হলেও, সম্পন্ন হয়নি সম্পূর্ণ কাজ। তখন ছিল বর্ষাকাল, কাদা, গর্তে , দুর্ঘটনার লেগেই থাকত। এমনকি তিনজনের মৃত্যু পর্যন্ত হয় এই রাস্তার উপরেই। বর্ষা পেরোতেই নতুন সমস্যা ! অন্ধকার হয়ে যায় পাশাপাশি দোকান-বাড়ি।

এলাকাবাসীর দাবি করোনা নিয়ে এত সচেতন সরকার, সে ক্ষেত্রে প্রতি নিহত শিশু ও বৃদ্ধদের শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যায় ভুগছেন ওই এলাকার মানুষ। রাস্তার খোওয়া ছিটকে, মন্দির, দোকান, বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। আহত হয়েছেন একাধিক পথচলতি সাধারণ মানুষ। দীর্ঘদিন প্রশাসনকে জানিয়েও কোনো লাভ হয়নি, স্বাভাবিকভাবেই বিগত দিনের অভিজ্ঞতা থেকে তারা বুঝে গেছেন আন্দোলনই একমাত্র পথ।

তাই আজ সকাল দশটা কুড়ি নাগাদ এলাকার প্রায় শতাধিক মহিলা শিশুরা পথ অবরোধ করেন প্রায় কুড়ি মিনিট। অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ এই রাস্তায় কুড়ি মিনিটের মধ্যেই গাড়ির লাইন পড়ে যায় রাস্তার দু’পাশ দিয়ে। ঘটনাস্থলে শান্তিপুর থানার ওসি সুমন দাস বিরাট পুলিশ বাহিনী নিয়ে পৌঁছে উচ্চপদস্থ প্রশাসনিক দপ্তরের কথা বলে আশ্বস্ত করেন তাদের। এরপরে বিক্ষোভ উঠে গেলেও পরিস্থিতি স্বাভাবিক হতে সময় লেগেছে প্রায় ঘন্টাখানেক।

Tags

Related Articles

Close