নদীয়া সংবাদনিউজরাজ্য

মুক্তমঞ্চের দাবি তুলে জেলা প্রশাসকের কাছে ডেপুটেশন জমা দিলেন নদীয়ার সমস্ত শিল্পীরা

রাজনৈতিক সভা সমিতির ছবি ভিডিও গুলি দেখার পরও যদি আমাদের স্টেজ পারফরম্যান্স করতে না দেওয়া হয়, সেটা বড়ই বেদনাদায়ক।

মলয় দে নদীয়া:- “মুক্ত মঞ্চ” ফিরিয়ে দেওয়ার দাবিতে নদিয়া ডিস্ট্রিক্ট স্টেজ প্রোগ্রাম অ্যাসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে জেলার বিভিন্ন শিল্পীরা একত্রিত হয়ে কৃষ্ণনগর রাজবাড়ি থেকে কালেকটারি মোড় পর্যন্ত মিছিল করে গিয়ে জেলা প্রশাসকের কাছে জমা দিলেন তাদের আবেদনপত্র।

তাদের দাবি দীর্ঘ লকডাউনে কর্মহীন হয়ে থাকার পর মুখ্যমন্ত্রীর প্রথম টুইটে আশার বাণী পেলেও পরবর্তী আরেকটি টূইটে জানানো হয় প্রশাসনিক অনুমতি না মেলায় স্থগিত থাকছে যেকোনো ধরনের বিচিত্রা অনুষ্ঠান, সান্ধ্য অনুষ্ঠান, এমনকি ঘরোয়া জলসা পর্যন্ত! এতে আপত্তি তাদের। তারা অত্যন্ত বেদনাদায়ক ভাবে জানান সিঙ্গার বা মিউজিসিয়ান এমনকি তার সম্পর্কিত লাইট মাইক ফটোগ্রাফার প্রত্যেকে এই পেশার সাথে যুক্ত।

রাজনৈতিক সভা সমিতির ছবি ভিডিও গুলি দেখার পরও যদি আমাদের স্টেজ পারফরম্যান্স করতে না দেওয়া হয়, সেটা বড়ই বেদনাদায়ক। অন্যান্য পেশার সঙ্গে যুক্ত সকলেই কম বেশি অর্থ উপার্জন করেছে দীর্ঘদিন গৃহবন্দি থাকার মধ্যেও। একমাত্র সংগীত নৃত্যর সঙ্গে যুক্ত শিল্পীরা শত দারিদ্রতাকে উপেক্ষা করেও সমাজের সকলের মনোরঞ্জন পড়ে এসেছে নিয়মিত ,আজ তারাই ব্রাত্য!শিল্পীরা বরাবরই উদাসীন প্রকৃতির হয় থাকেনা অর্থ উপার্জনের বা সংসারের!

মৌখিকভাবে শিল্পী সম্মান পেলেও মেলেনি সরকারি সুযোগ-সুবিধা, স্টেজে হাততালি পড়লেও বাস্তবে হাঁড়ি চড়ে না অনেকেরই। বেশ কয়েকদিন শিল্পী অভাবের দায়ে আত্মহত্যা পর্যন্ত করতে বাধ্য হয়েছে এই লকডাউনের মধ্যে।
তাই  জেলার ১৮ টি ব্লকের ৩৭টি শিল্পীসংস্থার পক্ষ থেকে পারস্পারিক দূরত্বর মতো স্বাস্থ্যবিধি মেনে জেলা প্রশাসকের কাছে অনুনয়-বিনয় করে গেলেন আজ। কিন্তু সুরাহা না মিললে আগামীতে ধৈর্যচ্যুতি ঘটে রাজ্যব্যাপী বৃহত্তর গণআন্দোলনে ফেটে পড়বেন তারা এমনটাই জানালেন শিল্পীরা।

Tags

Related Articles

Close