নদীয়া সংবাদনিউজরাজ্য

প্রেমে প্রত্যাখ্যান! দিদির বাড়ি বেড়াতে এসে সুইসাইড নোট লিখে আত্মহত্যা কিশোরীর

গতকাল রাত ১১ টা নাগাদ একটি সুইসাইড নোট লিখে শোয়ার খাটের পাশে ঘরের ছাদে ফ্যানের হুকের সাথে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করে।

মলয় দে নদীয়া: নদীয়ার হবিবপুরের পানপাড়া এলাকার গোপাল দেবনাথের ছোটো মেয়ে জয়া দেবনাথ এক সপ্তাহ আগে শান্তিপুর বাগানিপাড়ায় দিদির বাড়ি বেড়াতে আসে। হবিবপুরেরই একটি ছেলেকে ভালোবেসে বিয়ের প্রস্তাবে প্রত্যাক্ষিত হয়ে বেশ কিছুদিন যাবৎ মনমরা হয়ে ছিলো জয়া দেবনাথ।

গতকাল রাত ১১ টা নাগাদ একটি সুইসাইড নোট লিখে শোয়ার খাটের পাশে ঘরের ছাদে ফ্যানের হুকের সাথে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করে। পারিবারিক সূত্র অনুযায়ী জানা যায় জয়া দেবনাথ এ বছর মাধ্যমিক পাস করে, একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি হয় হবিবপুরের স্থানীয় একটি বিদ্যালয়ে। প্রসঙ্গত, জয়া দেবনাথের তিন বোনের মধ্যে বড়বোনও পারিবারিক অশান্তির জেরে দু’বছর আগে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করে।

পাশাপাশি ঘরে দিদি জামাইবাবু থাকলেও, আজ সকাল ছটা নাগাদ নাগাদ অনেক ডাকাডাকির পরও দরজা না খুললে জামাইবাবু তপন বিশ্বাস দরজা ভেঙে ঘরে ঢুকে দেখেন শ্যালিকা জয়া ঝুলে রয়েছে। এ বিষয় নিয়ে সকাল থেকেই এলাকায় যথেষ্ট চাঞ্চল্য দেখা দিয়েছে। শান্তিপুর থানার প্রশাসন সকাল দশটা নাগাদ মৃতদেহটি ময়না তদন্তের জন্য রানাঘাট মর্গে পাঠানোর ব্যবস্থা করেন এবং বিষয়টি নিয়ে রানাঘাট থানার সাথে আলোচনা সাপেক্ষ বিষয়টি পূর্ণতদন্তের মাধ্যমে রহস্য উদঘাটন করবে বলেই জানা যায় প্রশাসনিক সূত্রে।

Tags

Related Articles

Close