নদীয়া সংবাদনিউজরাজ্য

নদীয়ার শান্তিপুরে কালাচের উপদ্রব, এলাকাবাসীর অভিযোগ উদ্ধার দূরের কথা পরামর্শও দেওয়া হয়নি

রবিবার রাত্রি নটা নাগাদ সমীর দাসের বাড়ির ঘর লাগোয়া রান্না ঘরের মধ্যে একটি কালাচ সাপ হঠাৎই ঢুকে পরে।

মলয় দে নদীয়া:- রাতের অন্ধকারে কালাচ সাপ আতঙ্কে গৃহস্ত ও প্রতিবেশীরা। ঘটনাটি নদীয়ার শান্তিপুর পৌরসভা অঞ্চলের নয় নম্বর ওয়ার্ডের নতুন পাড়া এলাকায়। উল্লেখ্য রবিবার রাত্রি নটা নাগাদ সমীর দাসের বাড়ির ঘর লাগোয়া রান্না ঘরের মধ্যে একটি কালাচ সাপ হঠাৎই ঢুকে পরে।

নজরে আসে সমীর দাসের মেয়ের, বিষধর এই সাপ দেখে আতঙ্কে চেঁচামেচি করতে থাকে সমীর দাসের মেয়ে সহ বাড়ির লোকজন। চেঁচামেচি শুনে এলাকার লোকজনক ঘটনার স্থলে ছুটে আসে। বেশ কয়েকবার বনদপ্তর কে ফোন করা সত্ত্বেও ফোন ধরেনি বনদপ্তর পরে আবারও আরেকটি নাম্বারে চেষ্টা করলে ফোনের সুইচ অফ করে দেয় এমনটাই জানায় এলাকার লোকজন। স্বভাবতই বিষধর কালাচ সাপ ঘরে ঢোকা কে কেন্দ্রকরে বাড়ির লোকজন সহ এলাকায় যথেষ্ট আতঙ্কের সৃষ্টি হয়েছে।

পুরো বিষয়টি শান্তিপুর থানায় জানানো হয় তবে এখনো পর্যন্ত কালাচ সাপ টিকে উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি। যার কারণে আতঙ্কের মধ্যে রয়েছে গোটা পরিবার। সাধারণ মানুষের মধ্যে প্রশ্ন উঠেছে, রাজ্য সরকারের বনদপ্তরের মতন এটা গুরুত্বপূর্ণ বিভাগের পাবলিক সার্ভেন্টগণের গুরুত্বপূর্ণ ফোন নাম্বারে অন্তত পরামর্শ পাওয়ার অধিকারী নন সাধারণ মানুষ? সর্পরক্ষার তাগিদে সাধারণ মানুষ সচেতন হয়ে লাভ কি! যদি বিপদে তাদের পাওয়াই না যায়?

Tags

Related Articles

Close