কলকাতানিউজরাজ্য

স্বপ্ন অধরাই থেকে গেল, বিয়ের আগেই পথ দুর্ঘটনায় মৃত্যু প্রেমিক যুগলের

গতকাল দুজনে স্কুটি করে সল্টলেকের দিক থেকে চিনার পার্কের দিকে যাওয়ার সময় বিশ্ববাংলা গেটের নীচে দুর্ঘটনা ঘটে।

সামনের বছরই বিয়ে হবার কথা ছিল। কিন্তু সেই সব স্বপ্ন শেষ হয়ে গেল এক পথ দুর্ঘটনায়। নিউটাউনে পথ দুর্ঘটনায় মৃত্যু হল তরুণ-তরুণীর। গতকাল দুজনে স্কুটি করে সল্টলেকের দিক থেকে চিনার পার্কের দিকে যাওয়ার সময় বিশ্ববাংলা গেটের নীচে দুর্ঘটনা ঘটে। লরি এসে ধাক্কা দেয় স্কুটিটিকে। সঙ্গে সঙ্গে দুজনে ছিটকে পরে যায়। এরপর তাঁদের বিধাননগর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে দুজনকেই মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিত্সকরা।

মৃত তরুণ আইটিকর্মী। তার নাম দীপায়ন মুখার্জি। তিনি বরাহনগর স্পোটিং ক্লাবের ক্রিকেট দলের ক্যাপ্টেনও ছিলেন। আর তরুণীও আইটিকর্মী। তরুণীর নাম মেধা পাল। তিনি বেঙ্গালুরুতে কর্মরত ছিলেন। লকডাউনের জন্য বাড়িতে ফিরেছিলেন, আর বাড়িতেই ওয়ার্ক ফ্রম হোম করতেন। তরুণের বাড়ি বরাহনগর ও তরুণীর বাড়ি বিরাটিতে। পরিবারের সূত্রের খবর, সামনের বছরই দুজনের বিয়ে হওয়ার কথা ছিল। দুজনেই প্রতি শনিবার ঘুরতে যেতেন। সারাদিন একসাথে সময় কাটিয়ে, খাওয়া-দাওয়া করে বাড়ি ফিরতেন। এদিনও দুজন বেরিয়েছিলেন।

পুলিশ সূত্রে খবর অনুযায়ী, সল্টলেকের দিক থেকে চিনার পার্কের দিকে যাওয়ার সময় বিশ্ববাংলা গেটের কাছে দুর্ঘটনাটি ঘটে। স্কুটির পিছনে একটি লরি আসছিল সেই লরিটি পিছন থেকে ধাক্কা মেরে পালিয়ে যায়। ওই লরির খোঁজ চালাচ্ছে নিউটাউন থানার পুলিস। ধাক্কা মারার ফলে দুজনেই মাটিতে ছিটকে পড়ে যান। সঙ্গেসঙ্গে পুলিস অ্যাম্বুলেন্সে করে বিধাননগর মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যায়। কিন্তু তাঁদের বাঁচানো যায়নি। পরিবারের লোকেরা বিশ্বাসই করতে পারছেন না যে তাঁদের সন্তানেরা আর নেই।

Tags

Related Articles

Close