দেশনিউজ

চাপে পড়ে এবার সিবিআই তদন্তের নির্দেশ যোগী সরকারের

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির হস্তক্ষেপের পর ফার্স্টট্রাক কোর্টে এই মামলার বিচারের আশ্বাস দিয়েছিলেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ।

Advertisement

উত্তরপ্রদেশের গণধর্ষণকান্ড নিয়ে এখন উত্তাল গোটা দেশ। আর সেই চাপের মুখে পড়েই নতি স্বীকার করতে বাধ্য হচ্ছে উত্তরপ্রদেশ সরকার? কারণ এতদিন চুপচাপ বসে থাকার পর এবার কার্যত নড়েচড়ে বসেছে যোগী সরকার। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির হস্তক্ষেপের পর ফার্স্টট্রাক কোর্টে এই মামলার বিচারের আশ্বাস দিয়েছিলেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। আর তারপর শুক্রবার বিকেলে ডিএম প্রবীন কুমার এবং এসপি বিক্রম বীরের বিরুদ্ধে রিপোর্ট তলব করেছিল উত্তরপ্রদেশ সরকার।

জানা গিয়েছে, এদিন রাতেই এসপি বিক্রান্ত বীর, সিও রাম শাবাদ, ইন্সপেক্টর দীনেশ কুমার বর্মা, এসআই জগবীর সিং এবং হেড কনস্টেবল মহেশ পালকে সাসপেন্ড করার নির্দেশ দিয়েছেন যোগী আদিত্যনাথ। এমনকি এই পুলিশকর্মীদের নারকো টেস্ট করারও নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। আর এবার হাথরস কান্ড নিয়ে সিবিআই তদন্তের আর্জি জানিয়েছে যোগী সরকার।

সূত্র মারফত জানা গিয়েছে, আজ অর্থাৎ রবিবার প্রধানমন্ত্রীর দফতর থেকে এই বিষয়ে গ্রিন সিগন্যাল মিলতে পারে। শনিবার বিকেলে এক উচ্চপর্যায়ের বৈঠক করেন যোগী আদিত্যনাথ। এর আগে নির্যাতিতার পরিবারের সঙ্গে দেখা করেন ডিজিপি এইচসি অস্তি এবং স্বরাস্ট্রসচিব অবিনাশ অতশী। পুলিশদের দেখে তাদের সামনে ক্ষোভ উগরে দেন মৃতার পরিবার। এই ঘটনার পর বার বার উত্তরপ্রদেশকে নিয়ে আলোচনা চলছে। একের পর এক ধর্ষণকাণ্ড ঘটছে সেখানে। এর সাথেই চলছে রাজনৈতিক তরজা। আর তাই চাপের মুখেই পড়ে সিবিআই তদন্তের রাজি জানিয়েছে যোগী সরকার, তা বলাই বাহুল্য।

Tags

Related Articles

Close