আন্তর্জাতিকনিউজ

দেখা গেল পৃথিবীর সব থেকে বড়, বর্ণময় সামুদ্রিক মাছ, হইচই নেট দুনিয়ায়

পৃথিবী এক রহস্যগাথা। আর সবচেয়ে বেশী রহস্যে আবৃত সমুদ্রের তলদেশ। সমুদ্র বিজ্ঞানীরা বলছেন সমুদ্রের গভীরে এতো বিস্ময় রয়েছে যা আমাদের কল্পনার বাইরে। সমুদ্র রহস্যের মাত্র 5 শতাংশ হয়তো জানতে পেরেছেন বিজ্ঞানীরা।

সূত্র অনুযায়ী সবমিলিয়ে প্রায় ৩৭০ প্রজাতির হাঙ্গর আছে সমুদ্রে। এর মধ্যে সবচেয়ে বড় আকারের হাঙ্গরটি হোয়েল শার্ক। কিন্তু যদি প্রশ্ন আসে পুরুষ নাকি স্ত্রী বৃহত্তম শব্দের পর কে প্রথমে আসবে!! নারীরা যেভাবে সর্বক্ষেত্রে এগিয়ে যাচ্ছে এখানেও তার অন্যথা হলো না। পুরুষের তুলনাই স্ত্রী শার্ক বেশি বড়ো।

10 বছর ধরে অস্ট্রেলিয়ায় পশ্চিম উপকূলে নিঙ্গালু রিফ অংশে 54 টি হোয়েল শার্কের ওপর সমীক্ষা চালাচ্ছিলেন গবেষকরা। সম্প্রতি সেখান থেকেই জানা গেছে অল্প বয়সে পুরুষ ও স্ত্রী উভয় হোয়েল শার্ক দ্রুত হারে বাড়তে থাকে। কিন্তু প্রাপ্তবয়স্ক হওয়ার পর স্ত্রী হোয়েল শার্ক এগিয়ে যায়, আকারে পুরুষদের থেকে অনেকটাই বড় হয়।

অস্ট্রেলিয়ান ইনস্টিটিউট অফ মেরিন সায়েন্স এর গবেষক মার্ক মিকান কিছু তথ্য সামনে এনেছেন। এক পরিসংখ্যান থেকে দেখা যাচ্ছে পুরুষ শার্ক স্ত্রীদের তুলনায় প্রথমে দ্রুতগতিতে বৃদ্ধি পায়। কিন্তু বছর তিরিশের পর যখন প্রাপ্ত বয়স্ক হয়ে যায় তখন ২৬ ফুট দীর্ঘ হয় হয়। কিন্তু 50 বছর বয়সী একটি স্ত্রী শার্ক যখন প্রাপ্তবয়স্ক হয় তখন সে 46 ফুট দীর্ঘ হয়। এখনো পর্যন্ত সবচেয়ে দীর্ঘ হোয়েল শার্কটি একজন স্ত্রী হোয়েল যা ৬০ ফুট দীর্ঘ। মিকানের দাবি তাদের গবেষণায় প্রথমবার প্রমাণ করেছে পুরুষ ও স্ত্রী সার্কের বৃদ্ধির হার ভিন্ন হয়।

Tags

Related Articles

Close