নিউজরাজ্য

শ্বশুরবাড়ি গিয়ে খুলল কপাল, রাতারাতি কোটিপতি সামান্য নিরাপত্তারক্ষী জামাই

শ্বশুর বাড়ি গিয়েছিলেন জামাই আদর খেতে, কিন্তু শ্বশুর বাড়ি গিয়ে যে তার একেবারে ভাগ্য বদলে গিয়ে কোটিপতি হয়ে যাবেন সে কথা বোধহয় ভাবতে পারেননি আসানসোলের বাসিন্দা শ্রীধর রুইদাস।

আসানসোলের বাসিন্দা পেশায় বেসরকারি কোম্পানির নিরাপত্তারক্ষী শ্রীধর রুইদাস শনিবার জামুড়িয়ার শিবপুর এলাকায় শ্বশুর বাড়ি গিয়েছিলেন। সেখানেই বেলা এগারোটা নাগাদ একটি লটারির টিকিট কাটেন শ্রীধর। তার কয়েক ঘণ্টা পরেই দুপুর দেড়টা নাগাদ তিনি জানতে পারেন সেই লটারির টিকিটের প্রথম পুরস্কার অর্থাৎ নগদ 1 কোটি টাকা জিতেছেন তিনি।

ঘটনা জানাজানি হতেই হইচই পড়ে যায় এলাকায়। শ্রীধর এর বৃহস্পতি তুঙ্গে ভেবে তাকে তার আত্মীয়রা আরো লটারির টিকিট কাটার পরামর্শ দেয়। এরপর সেই মতন টিকিট কাটেন শ্রীধর। আর তারপরেই আবারো ঘটে চমৎকার। আশ্চর্যজনকভাবে বিকেলে আরো নগদ কয়েক লক্ষ টাকা জিতে যান তিনি। জামাইকে নিয়ে রীতিমতো হইচই পড়ে যায় শ্বশুর বাড়ির এলাকায়।

এমন বারবার লটারির টিকিট কাটা এবং তার সাথে নগদ টাকা পাওয়ার খবর পৌঁছে যায় পুলিশের কাছে। এরপরেই জামুরিয়া থানার পুলিশ শ্রীধরের নিরাপত্তার কথা ভেবে তাকে শনিবার রাতে থানায় নিয়ে যায়। পুলিশ সূত্রে জানানো হয়েছে, শ্রীধরের নিরাপত্তার কথা ভেবেই তাকে থানায় নিয়ে এসেছে পুলিশ।

Tags

Related Articles

Close