অর্থনীতিনিউজবাজারদর

কম দামে সোনা কেনার দুর্দান্ত সুযোগ, অনেকটা দাম কমলো সোনার

Advertisement

চলতি বছর করোনা আবহে সবকিছুতেই পড়েছিল ভাটা। এই বছর পুজো হবে কি হবে না সেই নিয়েও চিন্তা ছিল সকলের। দুর্গাপূজা হবে না এটা হতেই পারে না। অবশেষে সেই সব বাধা বিঘ্ন খাটিয়ে ইতিমধ্যেই দুর্গাপূজার প্রস্তুতি তুঙ্গে। আর এবার পুজোর আগে সোনা প্রেমীদের মুখে হাঁসি ফোটাতে রোজ কমছে সোনার দাম।

চলতি সপ্তাহে শুরু থেকেই কম রয়েছে সোনার দাম। গত চারদিন একেবারেই নিম্নমুখী ছিল সোনার দর। ট্রেন্ড বজায় রেখে পঞ্চম তম দিনেও আরও কমলো সোনার দাম। শুক্রবার ভারতীয় বাজারে আরও সস্তা সোনা। সোনা প্রেমিদের মুখে ফুটেছে চওড়া স্বস্তির হাঁসি। শুধু সোনা নয় দাম কমেছে রূপোরও। তবে এই সমস্ত কিছুর জেরে বিশেষজ্ঞদের ধারণা চাহিদা হ্রাস পাওয়ায় সোনার ইটিএফ বিনিয়োগে টান পড়েছে।এই প্রসঙ্গে কোটাক সিকিওরিটিজ-র তরফে এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, বর্তমান ট্রেন্ড মেনে বিবিধ চাপের মুখে সোনার দামে আপাতত বিশেষ বৃদ্ধির আশা কম। 

আসুন এবার দেখে নেওয়া যাক শুক্রবার ঠিক কতটা কমলো সোনার দাম। এমসিএক্স সূচকে ০.২৭% পতনের ফলে প্রতি ১০ গ্রাম সোনার দাম এদিন দাঁড়িয়েছে ৪৯,৭৭১ টাকা। এদিন স্পট গোল্ড সূচকে ০.২% পতনের জেরে প্রতি আউন্স সোনার দাম যাচ্ছে ১,৮৬৪.৪৭ ডলার। চলতি সপ্তাহের হিসেবে সোনার দাম পড়েছে ৪%। মোটের উপরে খানিকটা কমেছে সোনার দর। সারা সপ্তাহের হিসেব অনুযায়ী, সোনার দাম পড়েছে প্রতি ১০ গ্রামে প্রায় ২,০০০ টাকা। গত অধিবেশনে সোনার দাম সূচকে ০.৬৪% অর্থাৎ প্রতি ১০ গ্রামে ৩০০ টাকা বেড়েছিল।

পিছিয়ে নেই রূপোও। গত সূচকে ১.৮% বৃদ্ধির জেরে প্রতি কেজি রুপোর দাম বেড়েছিল ১,০৬০ টাকা। তবে, এদিন এমসিএক্স সূচকে ০.৫% পতনের জেরে প্রতি কেজি রুপোর দাম যাচ্ছে ৫৯,৩২৯ টাকা। অন্য দিকে, সূচকে ১.১% পতনের ফলে রুপোর দাম প্রতি আউন্স যাচ্ছে ২২.৯৫ ডলার। মোটের উপর হিসাব করলে রুপোর দাম কমেছে প্রতি কেজিতে ৯,০০০ টাকা। তাহলে আর অপেক্ষা কিসের পুজোর আগেই কিনে ফেলুন পছন্দমত সোনা কিংবা রুপোর গয়না।

Tags

Related Articles

Close