নিউজরাজ্য

রূপনারায়াণ নদীতে ভেসে উঠল ‘নৃত্য কালী’ মূর্তি, আসল রহস্য জানালেন এক শিক্ষক

Advertisement

বেশ কয়েক দিন ধরেই রাজ্য জুড়ে শুরু হয়েছে বৃষ্টি। বাদ যায়নি দক্ষিণবঙ্গও। প্রবল বর্ষণে নদীতে বেড়ে গিয়েছে জল। আমরা সবাই জানি জলে কিছু থাকলে জল তা সঙ্গে করে নিয়ে যায় না বরং ফিরিয়ে দেয়। আর এবার কোলাঘাটে ঘটলো এমনই ঘটনা। জলের তোড়ে ভেসে আসলো এক কালী মূর্তি যা নৃত্য রত। ইতিমধ্যে সোশ্যাল-মিডিয়ায়-ভাইরাল সেই কালী মূর্তির ছবি।

আমাদের কারুর অজানা নয় প্রতিবছর উত্তর কলকাতার বেনিয়াটোলা মেতে ওঠে নৃত্য কালীর আরাধনায়। কিন্তু চলতি বছর তো করোনা আবহে সব কিছুতেই পড়েছে ভাঁটা। এই বছর শুধুমাত্র ঘট পুজো করেই কাজ চালাতে হবে। তবে, এবার বেনিয়াটোলা শুধু নয় নৃত্য কালী মার দেখা মিললো কোলাঘাট বাবুয়ার অন্তর্গত দেনান এলাকার চিতাশাল ল্যান্ড রেজিস্ট্রি অফিসের সামনে রূপনারায়ন নদীর জলে। ওই নদের জোয়ারের জলে এলাকা প্লাবিত হয়ে যায় জল রাস্তায় উঠে আসে অনেক স্থানেই। স্হানীয় মহেশ্বর জানা নামে জনৈক ব্যক্তি ওই স্থানে প্রথমে একহাত ভাঙা অবস্থায় নটরাজ ভঙ্গিতে নৃত্যরতা দেবী কালীর একটি মুর্তি উদ্ধার করেন।

যদিও পরে হাত দশেক দুরত্বে ক্রমে ভাঙা হাত ও মুকুট একে একে পাওয়া যায়। কোলাঘাটের বাসিন্দা স্কুল শিক্ষক শুভজিৎ সরকার সেই মূর্তি সহ প্রাপক ব্যক্তির একটি ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেন। কালী প্রসঙ্গে শিক্ষক শুভজিৎ সরকার জানান, ‘অমাবস্যা,ভারী নিম্নচাপ ও প্রবল বর্ষণে রূপনারায়ণ নদীর জল ভয়ঙ্কর ভাবে ফুলে উঠে আশেপাশের অনেক এলাকাই ভাসিয়ে নিয়ে গিয়েছিল। রাস্তার ধারের সমস্ত দোকানপাট ও সব ঘরবাড়ি জলমগ্ন হয়ে পড়েছিল’।

ওই শিক্ষক আরও বলেন, ‘ এই বিপর্যয় শুধুই কোলাঘাটে নয়, রূপনারায়ণ নদীর তীরবর্তী সমস্ত এলাকাতেই হয়েছে। সেই রকমই কোনও এক এলাকার কোনও এক মন্দির অথবা কারও বাড়ী থেকে এই অনির্বচনীয় কাঠের মাতৃমূর্তিটি জোয়ারের জলে ভেসে আসে এবং কোলাঘাটের দেনান এলাকার সামন্তপাড়ার কিছু মানুষজন সেটি জল থেকে ভাসমান অবস্থায় উদ্ধার করেন। জলে ভেসে আসার সময় কোনও ভাবে মাতৃমূর্তির বামদিকের ওপরের হাতটি জখম হয় এবং পরে এলাকাবাসীর উদ্যোগেই তার আপাত মেরামতি করা হয়’। সে যেভাবেই আসুক এখন ওই কালীমূর্তি তাঁদের। তবে, কালী মূর্তির ছবি এই মুহূর্তে ভাইরাল নেট দুনিয়ায়।

Tags

Related Articles

Close